বিকাল ০৪:৫৬ ; মঙ্গলবার ;  ২১ মে, ২০১৯  

লতিফ সিদ্দিকী ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

সাবেক ডাক, টেলিযোগাযোগ তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ করেছে কয়েকটি ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দল। শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের সামনে এই বিক্ষোভ করে তারা। এছাড়া হেফাজত ইসলামের ঢাকার একাংশ রাজধানীর লালবাগে মিছিল করে।

জুমার নামাজের পর  রাজধানী  লালবাগে হেফাজতের উপদেষ্টা মাওলানা আবদুল লতীফ নেজামীর নেতৃত্বে মিছিল শেষে পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। পথসভায় উপস্থিত ছিলেন হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ, মুফতি তৈয়্যেব হোসাইন, মাওলানা জসিম উদ্দীন, মাওলানা আবদুল করীম, মাওলানা আবুল কাশেম প্রমুখ।

সেখানে হেফাজত নেতারা লতিফ সিদ্দিকীর ফাঁসি, ধর্ম অবমাননা রোধে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে সংসদে আইন করার দাবি জানান। হেফাজত নেতারা বলেন, উগ্রবাদী মুরতাদ, জঙ্গি লতিফ সিদ্দিকীকে মুক্তি দেওয়া হলে জনতার ক্ষোভের আগুন নেভানো  যাবে না। পরিস্থিতি চলে যাবে নিয়ন্ত্রণের বাইরে।

এদিকে লতিফ সিদ্দিকীসহ ধর্মদ্রোহীদের শাস্তির আইন পাস না হলে প্রয়োজনে হরতালের মতো কর্মসূচিও আসতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে লতিফ সিদ্দিকীসহ ধর্মদ্রোহীদের সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য আইন পাসের দাবিতে অনুষ্ঠিত ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরীর  বিক্ষোভ পূর্ব সমাবেশে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই কথা বলেন।  সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ বলেন,  ইসলামের অন্যতম স্তম্ভ পবিত্র হজ্ব এবং মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে আপত্তিকর ও নিকৃষ্ট মন্তব্য করে মুরতাদ লতিফ সিদ্দিকী ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছেন। তাকে জামিন দিয়ে মুক্তি দেওয়ার চক্রান্ত করলে দেশময় প্রতিবাদের আগুন জ্বলে উঠবে। মুরতাদের আশ্রয় জেলখানা ছাড়া আর কোথাও হবে না। তাকে মুসলিম দেশগুলোয় অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হবে। অবিলম্বে এই নাস্তিককে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে ব্যর্থ হলে দেশব্যাপী তীব্র আন্দোলনের দাবানল জ্বলে উঠবে। সেই আন্দোলন দমাতে কেউ পারবে না।  ঢাকা মহানগর সভাপতি এটিএম হেমায়েত উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং নগর সেক্রেটারি মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূমের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, নগর সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন, শ্রমিক নেতা মাওলানা ফখরুল ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়া বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেইটে ইসলামী ছাত্র খেলাফত বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিল শেষে  ইসলামী ছাত্র খেলাফতের কেন্দ্রীয় সভাপতি আনছারুল হকের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি জেনারেল খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অনুস্থতি হয়। সেখানে ইসলামী ঐক্যজোটের ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আলতাফ হোসাইন বলেন, লতিফ সিদ্দিকীর জামিন বাতিল না হলে আন্দোলনের দাবানল জ্বলবে। লতিফ সিদ্দিকীকে জামিন ও তার মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে সরকার মুসলমানদের কলিজায় আঘাত দিয়েছে। অবিলম্বে তার জামিন বাতিল করে সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে। তা না হলে সারা দেশে আন্দোলনের দাবানল জ্বলবে।

/সিএ/এমএনএইচ/                

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।