বিকাল ০৫:৩৭ ; সোমবার ;  ১৪ অক্টোবর, ২০১৯  

৭০ কিলোমিটার দীর্ঘ বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন নির্মাণে চুক্তি

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ থেকে নারায়ণগঞ্জের ভুলতা পর্যন্ত ৭০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের ৪০০ কেভি বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। এ ডাবল সার্কিট সঞ্চালন লাইনটি ২৮০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করবে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড (পিজিসিবি)।

বুধবার রাজধানীর পিজিসিবির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান ‘কেইসি ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড’র সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর করেছে পিজিসিবি।

পিজিসিবির পক্ষে কোম্পানি সচিব আশরাফ হোসেন এবং কেইসির পক্ষে কান্ট্রি হেড কে কে সিনহা চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন। পিজিসিবি এবং বাংলাদেশ সরকারের যৌথ অর্থায়নে এ কাজটি সম্পন্ন হবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পিজিসিবির ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শফিকউল্লাহ, নির্বাহী পরিচালক তপন কুমার রায়, প্রধান প্রকৌশলী অরুণ কুমার সাহা, প্রকল্প পরিচালক কাজী ইশতিয়াক হাসানসহ কেইসি ইন্টারন্যাশনাল এবং পিজিসিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা প্রমুখ।

চুক্তি অনুযায়ী আগামী ২০ মাসের মধ্যে কেইসি সঞ্চালন লাইনটি নির্মাণ করে পিজিসিবির কাছে হস্তান্তর করবে।

উল্লেখ্য, আশুগঞ্জে বিদ্যুতের আরও দুটি নতুন ইউনিট চালু হওয়ার কথা রয়েছে। এ দুটি ইউনিট চালু হলে বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে প্রায় ৯০০ মেগাওয়াট। উৎপাদন ক্ষমতা ভবিষ্যতে আরও বাড়বে। আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ বিতরণ সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে পিজিসিবি ২০১৩-১৪ অর্থবছরে ‘আশুগঞ্জ-ভুলতা ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন প্রকল্প’ শীর্ষক এ কর্মসূচি হাতে নেয়। এ বিদ্যুৎ সুষ্ঠুভাবে সঞ্চালন করতে নতুন ৪০০ কেভি ক্ষমতাসম্পন্ন লাইন নির্মাণ করছে পিজিসিবি।

এ প্রকল্পের আওতায় ৮ কিলোমিটার জুড়ে আরেকটি ২৩০ কেভি ডাবল সার্কিট সঞ্চালন লাইন এবং ভুলতায় ৪০০/২৩০ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্র (সাব-স্টেশন) নির্মাণের কথা রয়েছে। প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হলে আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে নিয়ে আসা সহজ হবে।

/এসআই/এফএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।