রাত ০৫:৩১ ; সোমবার ;  ১৮ নভেম্বর, ২০১৯  

খালেদা জিয়া শ্রমিকদের খুন করেছেন, করছেন: শাজাহান খান

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও নরসিংদী প্রতিনিধি ॥

'ক্ষমতায় থাকাকালে খালেদা জিয়া শ্রমিকদের খুন করেছেন, বিরোধী দলে থেকেও খুন করছেন' এমন মন্তব্য করেছেন নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার শাসনামলে ৯২ জন পরিবহন শ্রমিককে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বাস-ট্রাক মালিক শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শাজাহান খান বলেন, গত ৫ জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত বিএনপি সরকারবিরোধী আন্দোলনের নামে গাড়িতে পেট্রোলবোমা মেরে অনেক শ্রমিককে হত্যা করেছে। এর দায়ভার খালেদা জিয়াকে নিতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপির টানা হরতাল-অবরোধ চলাকালে আমাদের মালিক-শ্রমিকরা তাদের জীবন দিয়ে গাড়ির চাকা সচল রেখেছেন। যারা ২০১৩ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত শ্রমিকদের আগুনে পুড়িয়ে মেরেছে অামরা তাদের বিচার চাই।

সভায় জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মমিন মিয়া সভাপতিত্ব করেন। এতে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন, পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান পিপিএম, পৌর মেয়র হেলাল উদ্দিন, কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. ওসমান আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুনসহ অারও অনেকে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে ঢাকা থেকে সিলেট অভিমুখে জনতার অভিযাত্রা কর্মসূচীতে নরসিংদীতে পথসভা করেন নৌমন্ত্রী।

সেখানে শাজাহান খান বলেন, 'বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে খুনের রাজনীতি শুরু করেছিলেন জিয়াউর রহমান। তারই ধারাবাহিকতায় বেগম জিয়া ক্ষমতায় থেকে ও ক্ষমতার বাইরে থেকে মানুষ হত্যা করছে। তারা শেখ হাসিনার সরকারকে উৎখাতের চেষ্টা ও নির্বাচন বন্ধের নামে পেট্রলবোমায় মানুষ হত্যা, কোরআন পোড়ানো, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুড়িয়ে দেশে জঙ্গিবাদের সৃষ্টি করেছে। যারা পেট্রলবোমায় মানুষ হত্যা করেছে তাদের বিচার নিশ্চিত করতে দ্বিতীয় পর্যায়ের আন্দোলন শুরু হয়েছে। আজ সে আন্দোলনের প্রথম দিন।'

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীর সাহেপ্রতাব বাসস্ট্যান্ডে আন্ত:জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি এইচ এম জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা বাস্তবায়ন মঞ্চের সদস্য সচিব আবদুল মিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মতিন ভূঁইয়া, শ্রমিক পরিবহন মালিক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা মশিউর রহমান মৃধা। নরসিংদীর পথসভা শেষে সিলেটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন তিনি।

/এমআর/এফএস/এফএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।