রাত ০৪:৩৭ ; রবিবার ;  ২১ জুলাই, ২০১৯  

'শিক্ষার্থীদের হতে হবে প্রশ্নপ্রবণ'

বিজ্ঞান পাঠশালার আত্মপ্রকাশ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট

পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হল নতুন বিজ্ঞান সংগঠন বিজ্ঞান পাঠশালা। যুক্তিবাদী বিজ্ঞানমনস্ক প্রজন্ম তৈরির মাধ্যমে সমাজ বিনির্মাণে ভূমিকা রাখাই এই সংগঠনের প্রাথমিক উদ্দেশ্য।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার মিলনায়তনে বিজ্ঞান পাঠশালার প্রবর্তন অনুষ্ঠানে এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন দেশের প্রথিতযশা বিজ্ঞানী অধ্যাপক আলী আসগর। আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি বলেন, বিজ্ঞান মানুষকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। মানুষকে করেছে স্বাধীনচেতা। স্বাধীনতার বোধ রাজনৈতিক হলেও তা অর্জনের উপায় বিজ্ঞান।

এসময় দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার সমালোচনা করে তিনি বলেন, আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা ক্রমেই মুখস্থ সংস্কৃতির ধারক হয়ে উঠছে। শিক্ষার্থীরা প্রশ্নহীন হিসেবে গড়ে উঠছে। পরীক্ষা আর নম্বরভিত্তিক ফলাফল স্মৃতিশক্তি পরীক্ষা মহড়া ছাড়া আর কিছু করতে পারছে না। এজন্য তিনি শিক্ষার্থীদের প্রশ্নপ্রবণ হওয়ার পরামর্শ দেন।

আলোচনায় আরও অংশ নেন অধ্যাপক এম এম আকাশ, কৃষিবিজ্ঞানী আশরাফুজ্জামান সেলিম, বিজ্ঞানপ্রিয় সংগঠক এম এ আজিজ মিয়া ও শাহজাহান মৃধা বেনু এবং অধ্যাপক এ এন রাশেদা। সঞ্চালনা করেন কৃষিবিদ অঞ্জন মজুমদার।

অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক এম এম আকাশ বলেন, বিজ্ঞান প্রমাণে বিশ্বাস করে। আর অনুসন্ধানের মধ্য দিয়েই অর্জিত হয় প্রমাণ। তাই শুধু পাঠ নয়, শুধু তর্ক নয়, আগে দরকার অনুসন্ধিৎস্যু মন।

আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠান থেকেই বিজ্ঞান পাঠশালার সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়। সংগঠনের সমন্বয়কারী স্থপতি সৌমেন হাজরা জানান, এখন থেকে বিজ্ঞান পাঠশালা একটি গণ-বিজ্ঞান সংগঠন হিসেবে দেশব্যাপী তার কার্যক্রম পরিচালনা করবে। পর্যায়ক্রমে দেশের বিভিন্ন স্থান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে সংগঠনের বিস্তৃতি ঘটানো হবে। মূলত জনপরিসরে বিজ্ঞানের সত্যকে পৌঁছে দেওয়াই হবে এই সংগঠনের কাজ। বিজ্ঞান বিষয়ক বিভিন্ন কোর্স পরিচালনা ছাড়াও গবেষণা ও বিজ্ঞানবিষয়ক বিকল্প নীতি নির্ধারণে প্রয়াস থাকবে। নিয়মিত পাঠচক্র, বিজ্ঞান ক্যাম্প ও প্রচারাভিযানও করা হবে বলে জানান তিনি।

এরই মধ্যে বিজ্ঞান পাঠশালার ওয়েবসাইট www.bijnanpathshala.com প্রকাশিত হয়েছে। শিগগগিরই এর মুখপত্র 'বিজ্ঞান পাঠ' প্রকাশ করা হবে। আজ রবিবার সন্ধ্যায় সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ে উদ্বোধন করা হবে বিজ্ঞান গ্রন্থাগারের ।

/টিএন/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।