রাত ১০:১৯ ; রবিবার ;  ২০ অক্টোবর, ২০১৯  

২০ দলীয় জোটের অান্দোলন বানচাল করতেই সিটি নির্বাচন : জামায়াত

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের আন্দোলন বানচাল করতেই সরকার সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছে বলে মনে করে জোটশরিক জামায়াতে ইসলামী। দলটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি ডা. শফিকুর রহমান বলেন, জালেম, স্বৈরাচারী আওয়ামী নেতৃত্বাধীন সরকার জনগণের ন্যায্য ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। ক্ষমতা চিরস্থায়ী করার জন্য বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র করছে এ সরকার। রবিবার বিকালে দলটির প্রচার বিভাগ থেকে প্রেরিত বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ডা. শফিক বিবৃতিতে বলেন, নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। নিরপেক্ষ, গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য সকল প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণা ও কার্যক্রমে অংশগ্রহণের সুযোগ থাকা উচিত। সকল প্রার্থীর অবাধ চলাফেরা নিশ্চিত করা ও মিছিল-সমাবেশে সমান সুযোগ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য অপরিহার্য। কিন্তু সরকার পরিকল্পিতভাবে ২০ দলীয় জোট-সমর্থিত প্রার্থীদের নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশগ্রহণে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। রাজনৈতিকভাবে এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার কোনও সুযোগ নেই।

ডা. শফিক বিবৃতিতে অভিযোগ করেন, স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রশক্তির অপব্যবহার করে সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছেন। গণভবনে দলীয় লোকদের ডেকে নিয়ে নির্বাচনী কার্যক্রমের ঘোষণা ও দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে নির্বাচন সংক্রান্ত যে বক্তব্য দিয়েছেন, তা সম্পূর্ণ সংবিধানবিরোধী। তার এ বক্তব্যের মাধ্যমে নির্বাচনকে সরকারি নিয়ন্ত্রণে সম্পন্ন করার মনোভাবই ব্যক্ত করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে তাদের ভূমিকা ব্যাপকভাবে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। ৫ জানুয়ারির তামাশার নির্বাচন, ভোটডাকাতির উপজেলা নির্বাচনের পর ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন, নির্বাচন কমিশনের জন্য অগ্নিপরীক্ষা।

উল্লেখ্য, জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি ডা. শফিকুর রহমান বর্তমানে অাত্মগোপনে রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে প্রায় ১০টির বেশি রাজনৈতিক মামলা রয়েছে।

/এসটিএস/এমএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।