দুপুর ০৩:১০ ; সোমবার ;  ২০ মে, ২০১৯  

ক্যারিবীয়দের স্বপ্ন ভঙ্গের মূল কারণ 'গাপটিল'

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

হাবিবুল বাশার॥

আজ আমরা এই বিশ্বকাপের শেষ চার দলকে পেয়ে গেলাম। ম্যাচের আ‌‌‌গে নিউজিল্যান্ড এগিয়ে থাকলেও দেখার বিষয় ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলাটা কিভাবে শেষ করে। শেষ পর্যন্ত ক্যারিবীয়দের স্বপ্ন ভঙ্গই হলো। ক্যারিবীয়দের সেই স্বপ্ন ভঙ্গের মূল কারণ মার্টিন গাপটিলের ব্যাটিং। গাপটিলের ২৩৭ রানের পর টার্গেট যখন ৩৯৪, তখন আসলে অতি মানবীয় ইনিংস ছাড়া এ ম্যাচ জয় অসম্ভব ছিল ক্যারিবীয়দের জন্য। ক্রিকেটে একবারই এমন অসম্ভবকে সম্ভব করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। যেটা সচরাচর দেখা যায় না।

এ বিশ্বকাপে কিউইদের খেলা দিন দিন ভালোই হচ্ছে। দেখার বিষয় ছিল নকআউট পর্বে এসে তারা ভেঙে পড়ে কিনা। ম্যাককালাম এরপর গাপটিল টপ অর্ডারে কিন্তু ভালোই খেলেছে। বাংলাদেশের সঙ্গে গ্রুপ পর্বের খেলায় ম্যাককালাম নয়, গাপটিল আমাদেরকে ভুগিয়েছিল। আমরা তাদের ব্যাটিংকে চাপে ফেললেও গাপটিল আমাদের ফাঁদে পা না দিয়ে সেঞ্চুরি করেছিল।

আমি বলবো, আমাদের তরুণ খেলোয়াড় যারা ক্রিকেট শিখতে চায় তাদের ম্যাককালাম নয় গাপটিলের কাছ থেকেই শিক্ষা নেয়া দরকার। কারণ, ম্যাককালাম যেভাবে শুরু করে তা তরুণদের জন্য অনুকরণীয়। অনেকে পাওয়ার হিটিং করে ঝড়ো ব্যাটিং করে দুইশত করলেও গাপটিলের ইনিংসটা ছিল 'ক্ল্যাসিক' ইনিংস। তার ভারসাম্য পূর্ণ ব্যাটিং এবং লম্বা ছয় হাঁকানোর ক্ষমতা অসাধারণ। ভিলিয়ার্স ও গেইলের কথা মাথায় রেখে বলছি, এই বিশ্বকাপে আমার দেখা সেরা ইনিংস গাপটিলেরই।

ক্যারিবীয়দের গেইল দানব এবং আরও কিছু 'পাওয়ার হিটার' ছিল। নিউজিল্যান্ডের ছোট বাউন্ডারির মাঠে তারা রান পেলেই ম্যাচটা জয় অসম্ভব ছিল না। বিশ্বকাপে খাপ ছাড়া ক্যারিবীয় দলটাকে আজ কেউ খাদের কিনারা থেকে উদ্ধার করতে পারলেই হতো। শুরুতেই ব্যাটসম্যানরা লম্বা ইনিংস খেলতে না পারায় এমন ফল বরণ করতে হয়েছে। ৩০ ওভার পর্যন্ত তাদের রান রেট ৮-এর উপরে থাকলেও উইকেট পরে যাওয়াতে শেষ রক্ষা হয়নি।

অন্যদিকে বিশ্বকাপে আগের ম্যাচগুলোর ধারা অব্যাহত রেখে আজও কিউইরা ভালো বোলিং করেছে। গতকাল শুক্রবার অসি বোলার মিচেল স্টার্ক এরপর আজ কিউই বাঁহাতি ফাস্ট বোলার ট্রেন্ট বোল্ট ভালোই বল করলেন। ভেট্টরি গেইলের কাছে মার খেলেও সব মিলিয়ে ২ উইকেট নিয়ে ভালো বোলিং করেছে। আজ খেলার মধ্যমণি গাপটিল হলেও ভেট্টরির ক্যাচটা অনেক দিন মনে রাখবে ক্রিকেট ভক্তরা।

/এনএস/এফআইআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।