রাত ১১:০৭ ; সোমবার ;  ২২ জুলাই, ২০১৯  

নিউজিল্যান্ডই ফেবারিট তবে...

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

হাবিবুল বাশার।।

আসলে আজকেও গতকালকের ম্যাচের প্রসঙ্গ চলে আসলো। হওয়াটাই স্বাভাবিক, যার রেশ এখনও কাটেনি। কালকের ম্যাচের পর থেকেই আম্পায়ারিং নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। এমনকি বিক্ষোভও হয়েছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে অনেক কথা হচ্ছে। আলোচনাটা অনেকদিনই চলবে। ম্যাচটি এখন ইতিহাস হয়ে গেলেও আমি ব্যক্তিগত ভাবে বিষয়গুলো মানতেই পারিনি। এই ক্ষত আমাদের অনেকদিন পোড়াবে।

যাই হোক, আজকের ম্যাচের প্রসঙ্গে আসতেই হচ্ছে। আজকের পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ নিয়ে বলবো অসিরা প্রত্যাশিত জয়ই পেয়েছে। পাকিস্তানের কাছে কিছুটা প্রতিরোধ আশা করেছিলাম। এবারের বিশ্বকাপে ওদের ব্যাটিং লাইন আপ সেভাবে জ্বলে না উঠলেও গত কয়েকদিন ধরে ভালো করছিল। তাই আজকে মনে করেছিলাম হয়তো রান তিনশ’র মত যাবে। শেষ পর্যন্ত ২১৩ হলেও ম্যাচটা জমিয়ে তুলেছিল ওদের পেসাররা। বিশেষ করে ওয়াহাব রিয়াজের বোলিং, ওর আগ্রাসী বোলিং পাকিস্তানকে ভালোই আশা জাগিয়েছিল। ওর বোলিং বেশ ভালোই ভুগিয়েছে অসি ব্যাটসম্যানদের। বলবো রীতিমত ত্রাস ছড়িয়েছে। তবে কিছু ফিল্ডিং মিস না হলে হয়তো অন্য কিছুই দেখতে পেতাম। 

এ পর্যন্ত কোয়ার্টার ফাইনালের তিনটি ম্যাচ হয়ে গেলো। ম্যাচগুলোতে সেভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ পাইনি। আশা করছি, কালকের ম্যাচে পাবো। কালকের ম্যাচে কিন্তু নিউজিল্যান্ডই ফেবারিট। ক্যারিবীয়রা সেভাবে ফর্মে না থাকলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিছু ব্যাটসম্যান আছে যাদের পারফরম্যান্স ম্যাচের ভাগ্য বদলে দিতে পারে। 

/এফআইআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।