রাত ০৯:০৪ ; রবিবার ;  ২৬ মে, ২০১৯  

জবিতে ছাত্রলীগ কর্মীদের সংঘর্ষ, আহত ৩

প্রকাশিত:

জবি প্রতিনিধি॥

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই ঘটনা ঘটে। এতে এক বহিরাগতসহ ৩ জন আহত হয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ছাত্রলীগ কর্মীরা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশীদের অনুসারী ৯ম ব্যাচের ছাত্রলীগ কর্মী মিন্টু তার বান্ধবীকে নিয়ে কলা ভবনের সামনে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এ সময় সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মী ৬ষ্ঠ ব্যাচের সজীব ও বহিরাগত (এআইইউবির শিক্ষার্থী) ইয়াসির আরাফাত ক্যাম্পাস থেকে চলে যেতে বলেন মিন্টুকে। মিন্টু চলে যেতে আপত্তি জানালে তাকে ও তার বান্ধবীকে লাঞ্ছিত করেন সজীব ও ইয়াসির আরাফাত।

এরপর মিন্টু ঘটনাস্থল ত্যাগ করার কিছুক্ষণ পরেই বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বের হওয়ার সময় সজীব বন্ধুবান্ধব নিয়ে মিন্টুকে মারধর করে। পরে ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সোনা মামুন, সুমন, সজিব, হানিফ ও কাউছার বিষয়টি মধ্যস্থতা করতে যান। একপর্যায়ে মিন্টু তার বন্ধুদের নিয়ে সজীব গ্রুপকে পাল্টা মারধর করেন। এতে ইয়াসির আরাফাত মাথায় আঘাত পান। এ সময় সিনিয়র নেতারা সজীবের পক্ষ নিলে তারাও লাঞ্ছিত হন।

আহত মিন্টুকে মিটফোর্ড হাসপাতালে ও ইয়াসির আরাফাতকে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঘটনায় জড়িতরা ছাত্রলীগের কেউ না। তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়ারও অনুরোধ করেন তিনি।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশীদ এখনো ঘটনাটি সম্পর্কে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর নূর মোহাম্মদ বলেন, ক্যাম্পাসে মারধরের ঘটনা আমি শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেব।

/আরএআর/এসএম/এমএনএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।