সন্ধ্যা ০৭:০২ ; রবিবার ;  ১৯ মে, ২০১৯  

অামাদের হারানোর কিছুই নেই, পাওয়ার অাছে অনেক কিছু

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

হাবিবুল বাশার॥

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে টাইগারদের মুখোমুখি হবে ভারত। ভারত এবং বাংলাদেশ অর্থাৎ সবচেয়ে বেশি দর্শক এই খেলাটি দেখার জন্যে মুখিয়ে আছে। বাংলাদেশ অনেক ভালো ক্রিকেট খেলে এখানে এসেছে। তারপরেও বলবো এই ম্যাচ থেকে আমাদের পাওয়ার আছে অনেক, তবে হারানোর কিছু নেই। নক-আউট পর্বে সব দলগুলোই ভালো খেলে এখানে এসেছে। তাই ফলাফল যে কোনও কিছুই হতে পারে। সেমিফাইনাল থেকে আমরা মাত্র এক ম্যাচ দূরে আছি। সামনে যাওয়ার প্রত্যাশা অবশ্যই থাকবে তবে এখন পযর্ন্ত বাংলাদেশের প্রদর্শন দেখে আমি সন্তুষ্ট। খেলাটিতে ভারতই আমাদের থেকে বেশি চাপে থাকবে। তাই এই সুযোগটাই আমাদের কাজে লাগাতে হবে।

এদিকে অাজকের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালটি হয়ে গেলো। বিশ্লেষকদের ধারণা ভুল প্রমাণ করতে পারে বলেই এই পর্বের খেলাটি এতাে উপভোগ্য। নক-আউই পর্বে এসে কোন দলটি ভেঙে পরবে তা বলা কষ্টসাধ্য। আজকের শ্রীলঙ্কা বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার খেলাটাটি এর প্রমাণ হয়ে থাকলো। প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে যে প্রোটিয়া দলটির ভেঙে পরার কথা বলা হচ্ছিল তারা প্রত্যাশার পারদ ঠিকই সামলে নিয়ে সেমিতে পৌঁছে গেলো। অন্যদিকে গত দুইবারের ফাইনালিস্ট লঙ্কানরাই চাপ সামলাতে ব্যর্থ হলো।

শেষ আটের লড়াইয়ে কে কতোটুকু ভালো খেলেছে তার চাইতে বড় কথা কে কতোটুকু চাপ নিতে পারছে। কেউ ভাবেনি লঙ্কানরা আজ ১৩৩ রানে সব উইকেট হারিয়ে বসবে। অার প্রোটিয়ারা ১৮ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যাবে। সঙ্গে ডুমিনি হ্যাটট্রিক করবে। সব মিলিয়ে আজ দিনটা লঙ্কানদের ছিল না।

এবার দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিজেদের নামের সঙ্গে 'চোকার্স' অপবাদটি মুছে ফেলতে হলে আর মাত্র দুইটি জয় প্রয়োজন। বিশ্বকাপে শুরুটা তারা ভালো ভাবেই করেছিল। তাদের ডেল স্টেইন, মরনে মরকেল, অ্যাবোটের মতো বিশ্ব বিখ্যাত ফাস্ট বোলার আছে। তবে আজ বহু দিন পর স্পিনাররা প্রোটিয়াদের জয় এনে দিল। ইমরান তাহির আসার পর তাদের স্পিন বোলিংয়ের ধার অন্যভাবে বেড়ে গেছে মনে হচ্ছে। আজ ডুমিনির এমন উইকেট নেয়ার পর বাকি দলগুলো তাকে নিয়ে অবশ্যই চিন্তায় পড়বে।

অন্যদিকে সাঙ্গাকারা এবং মাহেলা জয়াবর্ধনের শেষ ম্যাচটা সুন্দর হলো না। দুজনেই নিজেদের সম্ভাব্য শেষ একদিনের ম্যাচ খেললো। তাদের জন্য একটু খারাপই লাগছে।

বলতে হবে প্রোটিয়াদের পরিকল্পনার কাছে লঙ্কানরা আজ পুরোপুরি পরাস্ত হয়েছে। প্রথমে হোঁচট খেয়ে লঙ্কানরা বেশি আক্রমণ করে খেলতে যেয়ে আরও বড় বিপদে পড়ে গেছে। তাড়া ১৩৩ রানে আটকে যাওয়ার পর ম্যাচের ফলাফল সবার জানা হয়ে গিয়েছিল। তবে বিশ্বকাপে আজকের ব্যাটিংয়ের মাধ্যমে ডি ককের ছন্দে ফিরে আসাটাই প্রোটিয়াদের জন্য বড় প্রাপ্তি।

/এনএস/এফআইআর/

 

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।