দুপুর ০২:৪০ ; বৃহস্পতিবার ;  ২৭ জুন, ২০১৯  

'গ্রাফিক নভেলে' বঙ্গবন্ধুর জীবনী

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

আলাল আহমেদ॥

কমিক বইয়ের পাতা উল্টাতে উল্টাতে যারা বড় হয়েছে তাদের বহুদিনের অতৃপ্তি, বাংলাদেশে তো সুপার হিরো নেই। অতৃপ্তি ছিল তরুণ কার্টুনিস্ট তন্ময় ও ষুভ'রও। বইয়ের পাতায় নেই বটে, কিন্তু বাস্তবের ইতিহাসে তো একজন আছেন। তিনি হলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁকে নিয়েই হতে পারে কমিক বই।

এমন ভাবনা ভাবতে ভাবতেই প্রস্তাব পেয়ে যান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) থেকে। বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে একটা গ্রাফিক নভেল করতে চায় তারা। প্রস্তাব পেয়ে এক মুহূর্ত দেরি না করে কাজে নেমে পড়েন সৈয়দ রাশাদ ইমাম তন্ময় ও এবিএম সালাহউদ্দীন ষুভ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনীর উপর ভিত্তি করে গ্রাফিক নভেল 'মুজিব' এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এভাবেই শুরুর কথা বললেন তরুণ এই কার্টুনিস্টদ্বয়। সিআরআই-এর তত্ত্বাবধানে ও শিবু কুমার শীল-এর সম্পাদনায় মোট ১২ খণ্ডে প্রকাশিত হবে এই গ্রাফিক নভেল। বঙ্গবন্ধু যাদুঘর সংলগ্ন শেখ লুৎফর রহমান ও শেখ সায়রা খাতুন প্রদর্শনী গ্যালারিতে যার ১ম পর্বের মোড়ক উন্মোচন হলো আজ মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে তিনটায়।

ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিতব্য বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীভিত্তিক এই সিরিজটি মূলত শিশু কিশোরদের কথা ভেবেই লেখা হয়েছে, যারা নিয়মিতভাবে কমিকস বা বই পড়ে থাকে। সিরিজের প্রথম বইটিতে মূলত বঙ্গবন্ধুর শৈশব ও বেড়ে ওঠার সময়কাল চিত্রায়িত হয়েছে। পরের পর্বগুলোতে বঙ্গবন্ধুর এক মহান নেতা হয়ে ওঠার পেছনে যে স্বপ্ন ও প্রেরণা কাজ করেছে তা চিত্রিত হবে। নবীন প্রজন্মের সামনে ধারাবাহিকটি তুলে ধরবে কীভাবে তিনি রাজনীতির সঙ্গে জড়ালেন, কীভাবে তিনি এই সবুজ বদ্বীপের মানুষদের শোনালেন স্বাধীনতার বাণী আর কীভাবেই তিনি হয়ে উঠলেন শেখ মুজিব থেকে বঙ্গবন্ধু।

নভেলের সব ছবি এঁকেছেন কার্টুনিস্ট তন্ময় এবং রঙ সংযোজন করেছেন ষুভ। সম্পাদনা করেন তরুণ শিল্পী ও সাহিত্যিক শিবু কুমার শীল এবং প্রকাশক হিসেবে কাজ করেছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ ও সিআরআইয়ের ট্রাস্টি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক।

নভেলের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী ও খ্যাতিমান কার্টুনিস্ট রফিকুন নবী, সিআরআইয়ের নির্বাহী পরিচালক সাব্বির বিন শামস, বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের প্রধান নির্বাহী মাশুরা হোসেন, কার্টুনিস্ট আহসান হাবীব।

কালে কালে যেভাবে ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে তাতে শিশুরা যাতে নিজেরাই পড়ে পড়ে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সঠিক ইতিহাস জানতে পারে সেজন্যই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেন রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক।

কার্টুন শিল্পের অন্যতম পথিকৃত আহসান হাবিব এই বইকে বাংলাদেশের প্রথম গ্রাফিক নভেল হিসেবে চিহ্নিত করে আয়োজকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। উপস্থিত সাব্বির বিন শামস কমিক বই না বলে কেন একে গ্রাফিক নভেল বলা হচ্ছে সে ব্যখ্যা দিয়ে বলেন, 'এখানে কিছু চরিত্রের চিত্রায়নে কল্পনার সাহায্য নেওয়া হলেও সব ঘটনা নেওয়া হয়েছে 'অসমাপ্ত আত্মজীবনী' থেকেই।' তিনি আরও যোগ করেন, 'দেশের বাইরে মার্টিন লুথার কিং, মহাত্মা গান্ধী, স্টিভ জবসকে নিয়ে এমন বই প্রকাশিত হয়েছে।'

বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীমূলক বই 'অসামপ্ত আত্মজীবনী' অবলম্বনে উল্লেখযোগ্য বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে ধারাবাহিকভাবে সাজানো হয়েছে বলে জানান সম্পাদক শিবু কুমার শীল। এছাড়া পরবর্তীতে এনিমেশন ফিল্ম তৈরির পরিকল্পনাও আছে বলে জানান তিনি।

জাতির জনকের জন্মদিনে এই বই প্রকাশের ঘটনাকে তাঁর প্রতি অসামান্য উপহার হিসেবে উল্লেখ করেন শিল্পী ও পথিকৃত কার্টুনিস্ট রফিকুন নবী।

পরবর্তীতে মানবাধিকার কর্মী ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব সারা জাকেরও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন, আইনজীবী ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব তারানা হালিম।

উল্লেখ্য, মোড়ক উন্মোচন শেষে এই বইয়ের ওপর নির্মিত একটি তথ্যচিত্রও প্রদর্শন করা হয় এবং সব শেষে উপস্থিত শিশু কিশোরসহ সবার মাঝে এই বই বিতরণ করা হয়।

এখন থেকে বইয়ের পাতায় অদ্বিতীয় সুপার হিরো হিসেবে স্থান করে নিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

ছবি: সাজ্জাদ হোসেন।

/এফএস/


 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।