দুপুর ০১:২৭ ; সোমবার ;  ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮  

৫ ফেসবুক ব্যবহারকারীকে খুঁজছে সরকার

দুই বছরে তথ্য চেয়েছে ৩৫ জনের

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

হিটলার এ. হালিম॥

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ৫ ব্যবহারকারীকে খুঁজছে সরকার। ইতোমধ্যে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে ৫টি অ্যাকাউন্টের (অাইডি) বিশদ তথ্য চেয়ে আবেদনও পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। সোমবার ফেসবুক প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একথা বলা হয়েছে। এই নিয়ে গত দেড় বছরে ৩৪ জনের বিষয়ে তথ্য চেয়ে ফেসবুকের কাছে অনুরোধ জানালো সরকার।

তবে সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে যোগাযোগ করে নিশ্চিত হওয়া যায়নি অাবেদনগুলো কোন প্রতিষ্ঠান বা সংস্থা থেকে করা হয়েছে।

ফেসবুকের প্রতিবেদন অনুসারে, মোট ৫টি অনুরোধের মাধ্যমে এই তথ্য চাওয়া হয়েছে। তবে কনটেন্ট ব্লক করার জন্য সরকার কোনও অাবেদন করেনি। ফেসবুকের দাবি, সরকারের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে তারা বাংলাদেশকে এখনও কোনও তথ্য দেয়নি।

২০১৪ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে ফেসবুকের কাছে এসব অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। প্রসঙ্গত, প্রতি ৬ মাস পর পর ফেসবুক এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

২০১৪ সালের জানুয়ারি থেকে জুনের মধ্যে ১৭ জনের (অাইডির) তথ্য চেয়ে অনুরোধ করেছিল সরকার। এর অাগে গত বছরের (২০১৩) প্রথম ছয় মাসে ফেসবুকের কাছে ১২টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছিল সরকার। তবে এখন পর্যন্ত ফেসবুক কোনও তথ্য বাংলাদেশকে দেয়নি।

২০১৪ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বর মাসের যে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ফেসবুক তাতে দেখা গেছে বিশ্বের ৮৮টি দেশ থেকে ৫০ হাজার ২৩৪ জনের বিষয়ে তথ্য চাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির ২১ হাজার ৭৩১টি অাইডির তথ্য চেয়েছে দেশটির সরকার।

যুক্তরাজ্যেও এ সংখ্যা কম নয়- ২ হাজার ৮৯০টি। ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকেও এবার তথ্য চাওয়ার পরিমাণ বেড়েছে।

ভারত সরকার ফেসুবকের কাছে ৫ হাজার ৪৭৩টি অাবেদনের মাধ্যমে ৭ হাজার ২৮১ জনের তথ্য চেয়ে পাঠায়। এর প্রায় ৪৫ শতাংশ তথ্য ফেসবুক ভারতকে দিয়েছে বলে জানা গেছে। অন্যদিকে পাকিস্তান ১০০টি অাবেদনের মাধ্যমে ১৫২ জনের তথ্য চায় ফেসবুকের কাছে। মোট অাবেদনের ৪২ শতাংশ তথ্য পাকিস্তান সরকারকে দিয়েছে বলে ফেসবুকের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

২০১৪ সালের প্রথম ৬ মাসের প্রতিবেদন অনুসারে ফেসবুক জানায়, সরকারের পক্ষ থেকে তথ্য চাওয়ার হার গত বছরের শেষার্ধ্বের তুলনায় ২৪ শতাংশ বেড়েছে। ফেসবুকের তথ্যানুযায়ী, ওই ৬ মাসে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার ফেসবুকের কাছ থেকে তথ্য পাওয়ার জন্য ৩৪ হাজার ৯৪৬টি অনুরোধ করে।

সবচেয়ে বেশি অনুরোধ করে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি ১৫ হাজার ৪৩৩টি অনুরোধের মাধ্যমে ২৩ হাজার ৬৬৭ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়েছে। এর মধ্যে শতকরা ৮০ শতাংশ ব্যবহারকারীর তথ্য যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে দিয়েছে ফেসবুক।

দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশি অনুরোধ করা হয়েছে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে। ভারত থেকে গত বছরের প্রথমার্ধ্বে ৪ হাজার ৫৫৯টি অনুরোধের মাধ্যমে ৫ হাজার ৯৫৮টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ প্রায় ৫১ শতাংশ ব্যবহারকারীর তথ্য সরকারকে দিয়েছে। ৪ হাজার ৯৬০টি কনটেন্ট ব্লক করেছে।

একই সময়ে পাকিস্তান থেকে ১১৬টি অনুরোধে ১৬০টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়েছিল। এর মধ্যে ৩৬ শতাংশ তথ্য দেওয়া হয়েছে সরকারকে। কনটেন্ট ব্লক করা হয়েছে ১ হাজার ৭৭৩টি।

এ বিষয়ে ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ তার নিজের ওয়ালে সোমবার লিখেছেন কেন এই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়, কীভাবে ফেসবুকের কাছে তথ্য চাওয়া হয়, ফেসবুক কী ব্যবস্থা নেয়, কোন কোন অাইডির তথ্য সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সরকারকে পাঠানো হয় সেসব। এই https://www.facebook.com/zuck/posts/10101974380267911?fref=nf&pnref=story লিংকে গিয়ে জানা যাবে বিস্তারিত।

ফেসবুক প্রকাশিত পুরো রিপোর্টটি পড়তে ক্লিক করুন: https://govtrequests.facebook.com/?pnref=story

/এইচএএইচ/এফএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।