সকাল ১০:৪৪ ; শুক্রবার ;  ২৭ এপ্রিল, ২০১৮  

গোপালগঞ্জে দুই হাজার টন ধারণক্ষমতার আলু বীজ হিমাগার উদ্বোধন কাল

প্রকাশিত:

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি॥

গোপালগঞ্জে ২০০০ টন ধারণক্ষমতা সম্পন্ন আলু বীজ হিমাগারের উদ্বোধন করা হবে সোমবার।

এ দিন বিকেলে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও গোপালগঞ্জ সদর আসনের এমপি শেখ ফজলুল করিম সেলিম এ হিমাগারের উদ্বোধন করবেন।গোপালগঞ্জে আলু বীজ উৎপাদন বৃদ্ধি করে কৃষককে অধিক লাভবান করার জন্য সরকার এ জেলায় আলু বীজ সংরক্ষণ হিমাগার নির্মাণের পরিকল্পনা করে।

গোপালগঞ্জ বিএডিসির নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জামাল ফারুক জানান, প্রায় ২৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ১ একর জমির ওপর বিএডিসি ও বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরি লিমিটেড আলু বীজ হিমাগার নির্মাণ করেছে। এরইমধ্যে নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। এ বছর থেকেই বিএডিসির তত্ত্বাবধানে এখানে আলু বীজ সংরক্ষণ করা হবে।

গোপালগঞ্জের পদ্মবিলা গ্রামের কৃষক মো. নজরুল সরদার বলেন, আলু বীজ আবাদে বিএডিসির সহায়তা ও পরামর্শ পাওয়া যায়। আলু বীজের উৎপাদনও ভাল হয়। বাজারে আলুর দামের তুলনায় সাধারণত ৩০ ভাগ বেশি দামে আলু বীজ সরকারের কাছে বিক্রি করা যায়। আগামী বছর এখান থেকেই আমরা মানসম্পন্ন আলু বীজ নিয়ে আবাদ করতে পারব।

গোপালগঞ্জ আলু বীজ সংরক্ষণের উপ-পরিচালক দিপংকর রায় বলেন, এ বছর বিএডিসির তত্ত্বাবধানে গোপালগঞ্জের ২৫ একর জমিতে আলু বীজের আবাদ করা হয়েছে। এখান থেকে কৃষক ১৭৫ মেট্রিক টন বীজ উৎপাদন করবে। কৃষকের কাছ থেকে এ বীজ কিনে গোপালগঞ্জ হিমাগারে সংরক্ষণ করা হবে। এছাড়া ফরিদপুর, যশোর, রাজশাহী থেকে আলু বীজ এনে এ হিমাগারে সংরক্ষণ করা হবে। আগামী বছর আলু আবাদ মৌসুমে এ হিমাগার থেকে কৃষকদের ন্যায্যমূল্যে বীজ সরবরাহ করা হবে।

/জেবি/এফএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।