দুপুর ০৩:৫০ ; মঙ্গলবার ;  ২৩ এপ্রিল, ২০১৯  

সিনেমার কারিগর আমাদের পল

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:


বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥

পল জেমস। নামটা শুনেই একটু নড়েচড়ে বসলাম। সম্ভবত বিদেশি। চেহারা দেখে নিশ্চিত হলাম স্পেনিশ বা মেক্সিকান কেউ হবে। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম দেখে একটু চমকাতেই হচ্ছে। তিনি পল জেমস গোমেজ একেবারে দেশি ছেলে। দেশি মানে বাংলাদেশি। আরে ভাই চমকানোর তো কারণ আছে। উনার চিত্রকর্ম আর সিনেমার প্রদর্শনী বিষয়ক যাবতীয় তথ্য যদি আন্তর্জাতিক ব্লগে প্রকাশিত হয় তখন আমরা কি করে বুঝব তিনি খাটি দেশি ।

গুগল সার্চ দিয়ে পলের যে প্রোফাইল পাওয়া যায় তাতে আলমা ম্যাটার তথা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকা খুব বেশি লম্বা না হলেও প্রসিদ্ধ। পল জেমস গোমেজ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ইউনিভার্সিটি অব এডিনবার্গ শেষ করে এখন ব্রিটিশ স্কুল অ্যাট রোম (বিএসআর) -এ ফেলো হিসাবে কাজ করছেন ক্রিয়েটিভ স্কটল্যান্ড ডকুমেন্ট২৪-এ।

বাংলাদেশে কাজের ক্ষেত্র বলতে গেলে যমুনা টেলিভিশন আর বিবিসি মিডিয়া অ্যাকশন-এর কথাও উল্লেখ না করলেই নয়। এত বিস্তৃত অভিজ্ঞতার বয়ান শুনে বোঝাই যায় তিনি অনেকটা 'জ্যাক অব অল ট্রেডস'। তবে প্রবচনের জ্যাক এর মতো নন। তিনি 'মাস্টার অব ফিল্ম মেকিং'।

আরও খুলে বলতে গেলে, তিনি আসলে গল্প বলেন, সেলুলয়েডে। উচ্চতর জ্ঞানার্জনের জন্য ইতালিতে গিয়ে মন থেকে মুছে যায়নি অভিবাসনের অবসাদ। রোমের রাস্তা থেকে অভিবাসীদের জীবন থেকে নিয়ে টুকরো টুকরো গল্প গেঁথে তৈরি করেছেন স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। সেসব যেমন প্রশংসা কুড়িয়েছে আন্তর্জাতিক মহলে তেমনি নতুন অধ্যায় রচনা করেছে সেখানকার অভিবাসীদের জীবনে। তাদের না বলা গল্পগুলো সবার সামনে নিয়ে আসার জন্য। নিজের জাত চিনিয়েছেন সঙ্গে মুখ উজ্জ্বল করেছেন দেশের।

খ্যাতিমান এবং দ্যুতিমান এই তরুণের চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে ব্রিটিশ স্কুল অব রোম এর মার্চ মাসের চারুকলা প্রদর্শনীতে। তিনি ছাড়াও আরও দেশ-বিদেশের আরও সাতজন শিল্পীর কাজ এখানে শোভা পাবে।

এডিনবার্গ কলেজ অব আর্ট-এর হয়ে 'হোয়্যার ইজ বিলে?' নামে ৫৫ মিনিটের একটি ভিডিও ফিল্ম নির্মাণ করেছেন পল জেমস গোমেজ। ভিডিওটি দেখতে চাইলে ক্লিক করতে হবে- https://pauljamesgomes.wordpress.com/ এই লিংক-এ।

পল আদ্যোপান্ত একজন সিনেমার কারিগর হয়ে উঠতে চান। ইচ্ছা ধ্যান-জ্ঞান সবই এই ছবি তৈরি ও ফাইন-আর্টস ঘিরে। আমাদেরও প্রত্যাশা আমাদের ছেলে একদিন দেশের নাম ছড়িয়ে দিবে সারা বিশ্বে।

/এএলএ/এফএএন

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।