দুপুর ০৩:২৭ ; সোমবার ;  ২০ মে, ২০১৯  

মাশরাফি ইনজুরিতে থাকলে বিশ্রাম দেয়া উচিৎ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

হাবিবুল বাশার॥

এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে অপেশাদার একটি দল সংযুক্ত আরব আমিরাত। যেহেতু তাদের প্রতিপক্ষ ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা তাই বোঝাই যাচ্ছিল খেলাটা একপেশেই হবে।

আরব আমিরাতের সম্পর্কে বলবো বিশ্বকাপের আগে তাদের খেলার সুযোগ কম ছিল। তাই তাদের কাছে এর চেয়ে বেশি ভালো পারফরম্যান্স আশা করা যায় না। অার বিশ্বকাপটাও প্রথমবারের মতো খেলছে। তবে তাদের হতাশ হবার কিছু নেই, বিশ্বকাপের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সামনে তারা আরও ভালো খেলবে। আশা করি এর মধ্যে পেশাদারী খেলোয়াড় বেরিয়ে আসবে।

আজকের খেলায় দক্ষিণ আফ্রিকা যখন টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নামে তখন অনেকেই মনে করেছিল আজকেও চারশ'র বেশি রান হবে। তা করতে না পারলেও তিনশ'র বেশি রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছে প্রোটিয়ারা। তবে অাজকে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং অামার কাছে সন্তোষজনক মনে হয়নি। দলের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ব্যাটসম্যানরা নিয়মিত উইকেট হারিয়ে ফেলছে। সে ক্ষেত্রে ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্স নিয়ে অবশ্যই দলটির চিন্তা করা দরকার। তারা এখন নক আউট পর্বের কাছকাছি চলে এসেছে। ব্যাটিংয়ে ধারাবাহিকতা না থাকলে নক আউট পর্বে তারা সমস্যায় পড়তে পারে।

ডি ভিলিয়ার্স সম্পর্কে বলবো, আজকের ম্যাচের জন্যে দুর্ভাগা তিনি। ৯৯ রান করে আউট হয়েছে। তবে ব্যাট হাতে দারুণ ফর্মে আছেন। দল যখন নড়বড়ে অবস্থায় থাকে তখন করণীয় সম্পর্কে খুব ভালো করেই জানেন তিনি। তাই দলের বাকি ব্যাটসম্যানদের উচিৎ তার পদাঙ্ক অনুসরণ করা।

বোলিংয়ে আফ্রিকার বোলার মরনে মরকেল আজ বেশ কিছু বাউন্সি ডেলিভারি দিয়েছেন। তার বাউন্সারে বেশি সুবিধা করতে পারেনি দুর্বল অারব অামিরাত। তবে যারা বাউন্সার ভালো খেলে তাদের বিপক্ষে এ ধরনের বল কতটুকু কাজে দেবে সেটাই এখন দেখার বিষয়। ডেল স্টেইনের ছন্দে ফেরা উচিৎ। ভালো বল করলেও খুব কম উইকেটের দেখা পেয়েছেন তিনি।

তবে সার্বিক দিক থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার দল নিয়ে বলতে গেলে ভালোই করছে তারা। এর আগের বিশ্বকাপগুলোতে দেখা যেত প্রথম রাউন্ডে প্রতিটি খেলায় দুর্দান্ত পারফর্ম করে সব খেলায় জয় নিয়ে নক আউটে উঠতে। কিন্তু প্রত্যেকবারই নক আউট পর্বে ভালো পারফর্ম না করে বিদায় নিত। তবে এবার তাদের একটু ভিন্নরূপে দেখা যাচ্ছে, প্রথম রাউন্ডে ধীরগতিতে এগুচ্ছে। এটা তাদের নতুন কৌশল কি না জানি না, তবে দ্বিতীয় রাউন্ডে তারা কেমন করবে সেইটাই দেখার বিষয়।

কাল শুক্রবার বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে। গ্রুপ পর্যায়ে এটাই শেষ খেলা। এই খেলায় আসলে হারাবার কিছু নেই। এই খেলায় জয় পরাজয় আসলে মূল ঘটনা নয়। তবে জয় পেলে অবশ্যই ভালো, দলের মধ্যে আত্মবিশ্বাস আরো বাড়বে। হারলেও খুব একটা ক্ষতি নেই, যেহেতু আমাদের মূল খেলা হচ্ছে নক আউট। দলের পরিবর্তন নিয়ে বলবো, এই মুহূর্তে দলের কোন পরিবর্তনের প্রয়োজন দেখছি না। তবে মাশরাফি যদি ইনজুরিতে থাকে তাহলে শুধু তাকেই কালকের খেলায় বিশ্রাম দেয়া উচিৎ।

/এঅার/এফঅাইঅার/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।