সন্ধ্যা ০৬:২৮ ; রবিবার ;  ১৯ মে, ২০১৯  

শেষ বলে কিছু নেই, তাই প্রমাণ করলো পাকিস্তান

প্রকাশিত:

হাবিবুল বাশার ॥

অাজকে পাকিস্তান-দক্ষিণ অাফ্রিকা ম্যাচ দেখে অাবারও প্রমাণিত হলো ক্রিকেট গৌরবময় অনিশ্চিয়তার খেলা। ম্যাচের অাগে কিন্তু কাগজে কলমে সব দিক থেকেই এগিয়ে ছিল প্রোটিয়ারা। ক্রিকেটে যে শেষ বলে কিছু নেই, তাই প্রমাণ করে দিল পাকিস্তান।

পাকিস্তানকে যখন অ্যাবট, স্টেইন, মরকেলরা ২২২ রানে বেঁধে ফেললো। তখন আসলে মনে হচ্ছিল প্রোটিয়ারা ৩৫ ওভারেই ম্যাচটি জিতে যাবে। কারণ, আগের দুই ম্যাচে তারা রানের পাহাড় গড়েছিল। তবে দিনটাকে আজ পাকিস্তান নিজেদের করে নেওয়ার পণ করেই মাঠে নেমেছিল।

অাজকে পা‌‌‌কিস্তানের খেলা দেখে মনে হয়েছে পাকিস্তানের এতো ভালো বোলিং শেষ কবে দেখেছি, তা স্মৃতির পাতা খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। ওরা অসাধারণ বোলিং করেছে। বিশেষ করে রাহাত আলী, ওয়াহাব এবং ইরফান। অার এই একাদশটাই তাদের বেশী সম্ভাবনাময় একাদশ বলে এখন মনে হচ্ছে। ইউনুস খানকে নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে । যদিও সে রান পায়নি তবে ৩ নম্বরে খেলার জন্য তিনি সবচেয়ে বেশী যোগ্যতর।

মিসবাহ'র কথা বলতেই হবে। মিসবাহ খুব আক্রমণাত্মক খেলেন না, তবে খুব কার্যকর ব্যাটিং করেন। অনেকে এ ব্যাটিং স্টাইল পছন্দ না করলেও পাকিস্তানের এমন একজন ব্যাটসম্যানই দরকার ‌‌‌ছিল। আফ্রিদির কাছে প্রত্যাশা ছিল অনেক। শুরুটা ভালো করলেও ক্রিজে বেশিক্ষণ থিতু হতে পারেনি। আর কিছুক্ষণ থাকলে রান আরও বেশী হতো। ম্যাচের এই পর্যায়ে মনে হচ্ছে 'অানপ্রেডিক্টেবল' পাকিস্তান কোয়ার্টার ফাইনালের সব রসদ যোগাড় করে ফেলছে।

দিনের অন্য ম্যাচটি ছিল আয়ারল্যান্ড এবং জিম্বাবুয়ে। ওরাও দুর্দান্ত খেলেছে। জিম্বাবুয়ের প্রথম দিকের শুরু দেখে মনে হয়েছিল ওরা বোধহয় ছিটকেই গেছে ম্যাচটি থেকে। তবে এক পর্যায়ে দারুণ ভাবে ফিরে এসেছিল। শেষ পর্যন্ত ম্যাচের অার সেই রাশ টেনে ধরে রাখতে পারেনি। অার আয়ারল্যান্ডকে দেখে এটাই মনে হচ্ছে ওরা কিন্তু সবাইকে হারিয়ে দিচ্ছে। জায়ান্ট কিলিং মিশন ওরা অব্যাহত রেখেছে। ওদের ব্যাটিং দারুণ, বোলিংয়ে কিছু ঘাটতি থাকলেও তা ফিল্ডিং দিয়ে তারা পূরণ করে দিচ্ছে। যেটা যে কোনও প্রতিপক্ষের জন্যে সতর্কবার্তা।

সব মিলিয়ে এই গ্রুপটা অনিশ্চিতই হয়ে যাচ্ছে। এখান থেকে কারা পরের রাউন্ডে যাবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

/এনএস/এফঅাইঅার/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।