দুপুর ০১:২৫ ; রবিবার ;  ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৯  

চলতি বছরই স্থিতিশীল হবে জ্বালানি তেলের বাজার

প্রকাশিত:

বিজনেস ডেস্ক॥

চলতি বছরই স্থিতিশীলতা আসবে জ্বালানি তেলের বাজারে। নিয়ন্ত্রণে আসবে জ্বালানি তেলের দাম। সম্প্রতি বার্লিনে অনুষ্ঠিত জ্বালানি বিষয়ক সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন সৌদি আরবের জ্বালানিমন্ত্রী আলি আল নাইমি। তবে চাহিদা না বাড়লে পরিস্থিতি উন্নয়ন হবে কি না তা নিয়ে সংশয়ে বিশেষজ্ঞরা।

জ্বালানি তেলের অব্যাহত দরপতনেও উত্তোলন না কমানোর সিদ্ধান্তে অটল ছিল বিশ্বের বৃহত্তম তেল রফতানিকারক দেশ সৌদি আরব। এজন্য পুরো বিশ্বে এমনকি ওপেক সদস্যভুক্ত কয়েকটি দেশের কাছে এখনও সমালোচিত দেশটি।

তবে সম্প্রতি সৌদি জ্বালানিমন্ত্রী আলি আল নাইমি ঘোষণা দিলেন, চলতি বছরই স্থিতিশীল হয়ে আসবে জ্বালানি তেলের বাজার। বাড়বে জ্বালানি তেলের দাম। তবে এজন্য ওপেক বহির্ভূত দেশগুলোকে সমালোচনা নয়, সহযোগিতার হাত বাড়ানোর আহ্বান জানালেন তিনি।

সৌদি আরবের জ্বালানিমন্ত্রী বলেন, গত বছরের জুন থেকে জ্বালানি তেলের অব্যাহত দরপতনে ওপেক সদস্যভূক্ত অন্যান্য দেশসহ সৌদি আরবের অনেক সমালোচনা হয়েছে, বিশেষ করে পশ্চিমারা ভাবছেন ওপেকের কোনও অস্তিত্বই নেই, কিন্তু তাদের ধারণা দ্রুতই ভুল প্রমাণিত করব আমরা, বাজার স্বাভাবিক করতে আমরা বদ্ধ পরিকর। তবে চাহিদা না বাড়লে জ্বালানি তেলের বাজারে এবছরও স্থিতিশীলতা আসবে না বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

বাজার বিশ্লেষক জেমা গডফ্রে বলেন, জ্বালানি তেলের চাহিদা, উৎপাদন এবং সরবরাহে কোনও সামঞ্জস্য নেই, কারণ মানুষ এখন সতর্ক হয়ে গেছে, এ অবস্থায় জ্বালানি তেলের বিক্রি কমলে আপাতত দাম বাড়ার কোনও সম্ভাবনাই নেই।

জানুয়ারিতে বিশ্ববাজারে প্রতি ব্যারেল জ্বালানি তেল বিক্রি হয়েছে গেল ৬ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দামে। স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে আপাতত তাই তেলের উত্তোলন কমানোর পরামর্শই দিচ্ছেন বাজার বিশ্লেষকরা।

/এসআই/এমএনএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।