দুপুর ০২:৩০ ; সোমবার ;  ২০ মে, ২০১৯  

ইংল্যান্ড হারায় অামাদের সমীকরণ সহজ হয়ে গেলো

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

হাবিবুল বাশার॥

এবারের বিশ্বকাপে শুরু থেকেই নিজেদের ছায়া হয়ে খেলেছে ইংল্যান্ড। একদিন তাদের ব্যাটিংয়ে ছন্দ দেখা না গেলে অারেক দিন বোলিং ছিল অগোছালো। এমনকি টপ অর্ডারও সেভাবে জ্বলে উঠতে পারছে না। অাজকের ম্যাচেও তেমনটাই দেখলাম। তিনশ'র মতো বিশাল রানের পাহাড় গড়েছিল, যা জয়ের জন্যেই যথেষ্ট ছিল।

কিন্তু বোলিংয়ে সেভাবে প্রতিরোধ দিতে না পারায় শেষ হাসি হাসতে পারলো না। অবশ্য যাদের বিপক্ষে খেলেছে ওরা ছিল শ্রীলঙ্কা। বিশ্বকাপে এলেই কিন্তু লঙ্কানরা খোলস ছেড়ে বেড়িয়ে অাসে। অাজকের ম্যাচে সেভাবেই সহজে কাজটা করে দেখালো শ্রীলঙ্কা। ওরা কিন্তু এবার পরিপূর্ণ একটি দল। একবার বিশ্বকাপও ঘরে তুলেছে। একটি টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপাও জিতেছে। সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বলেই মাত্র এক উইকেট খরচ করে তিনশ' রান তাড়া করে ম্যাচ জিতে নিয়েছে। যেটা মোটেও সহজ কাজ নয়। থিরিমান্নে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উইকেট অাঁকড়ে ধরে খেলেছে। সঙ্গে সাঙ্গাকারাও ছিল অারও দায়িত্বশীল। মনে হচ্ছে দিনে দিনে সাঙ্গা আরও ভয়ানক হয়ে উঠছে। যেটা বাকিদের জন্যে সতর্ক বার্তা।

ইংলিশদের খেলা দেখে মনে হয়েছে, ওদের বোলারদের শুধু গতি দিয়ে বল করলে হবে না, সঙ্গে সুইং দক্ষতাও থাকা দরকার। এ কারণেই ওরা বেশি মার খাচ্ছে। আমার মতে ইংলিশরা সোয়ানের অনুপস্থিতি অনুভব করছে। সঙ্গে অারও বলবো মরগানের দ্রুত রানে ফেরা উচিৎ।

অন্যদিকে পাকিস্তান ও জিম্বাবুয়ের ম্যাচটি বেশ জমজমাট ছিল। তবে পাকিস্তানের ব্যাটিং দেখে আমি অনেকটাই হতাশ হয়েছি। কারণ জিম্বাবুয়ের বোলিং প্রতিরোধ দেওয়ার মতো ভালো ছিল না। এমন নড়বড়ে বোলিংয়ে পাকিস্তান ব্যাটিং লাইনঅাপ দাঁড়াতেই পারেনি। এটা বিস্ময়করই। তবে মিসবাহ ও ওয়াহাব রিয়াজ থাকায় পাকিস্তান এ যাত্রায় বেঁচে গেছে। জয়ের কারণে টুর্নামেন্টে ফিরতে পেরেছে।

শেষে বলতে হবে আজ ইংল্যান্ড হেরে যাওয়াতে অামাদের জন্যে সমীকরণটা অারও সহজ হয়ে গেলাে। এখন আমাদের সামনের তিনটি ম্যাচের মধ্যে দুটিতে জিততেই হবে। অার এখন রান রেট খুব একটা প্রভাব ফেলবে না বলে মনে হচ্ছে।

 

/এনএস/এফঅাইঅার/এএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।