সকাল ১০:৪৯ ; শুক্রবার ;  ২৭ এপ্রিল, ২০১৮  

আহছানিয়া মিশনে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ

প্রকাশিত:

পঞ্চগড় প্রতিনিধি॥

ঢাকার আহছানিয়া মিশনের পঞ্চগড় শিশুনগরীর শিশুদের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছে সেখানে আশ্রিত শিশুরা ও স্থানীয়রা। এ নিয়ে এলাকার লোকজন একাধিকবার কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

গত রবিবারও এই ধরণের নির্যাতনের ঘটনা ঘটলে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। বিক্ষুব্ধরা দিনভর ঢাকার আহছানিয়া মিশন শিশুনগরিতে ভিড় করে সংশ্লিষ্টদের বিচার দাবি করেন।

আহছানিয়া মিশন শিশুনগরী ও স্থানীয়রা জানায়, তিন বছর আগে পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের জলাপড়া গ্রামে এই শিশুনগরী চালু হয়। কিন্ডার নট হিলফি নামে জার্মানির একটি সংস্থার অর্থায়নে ঢাকার আহছানিয়া মিশন এই শিশুনগরি পরিচালনা করছে। বর্তমানে এখানে ছয় থেকে ১২ বছর বয়সি ৭৯ জন শিশু রয়েছে। তাদের মধ্যে মাত্র ১০/১২জন শিশুকে তাদের অভিভাবক এখানে স্বেচ্ছায় দিয়ে গেছেন। অবশিষ্ট শিশুদের জোর করে ও নানাভাবে ফুসলিয়ে এখানে এনে রাখা হয়েছে বলে জানায় শিশুরা।

শিশু জহিরুল ইসলাম ওরফে ফটিকচান, আলামিন, সাগর, সালাহউদ্দিন, আলিফ, পারভেজ, রাজন, রানা, আশিক, ইয়াছিন, ইমনসহ অন্যান্য শিশুরা জানান, শিশুনগরীর কর্তৃপক্ষ তাদের নানা কারণে নির্যাতন করে। তারা এসব কথা স্থানীয় লোকজনদের অবহিত করেছে।

শনিবার শিশু নগরীর তিন শিশু সেখান থেকে পালিয়ে গিয়ে স্থানীয় গ্রামবাসীদের বাড়িতে আশ্রয় নেন। সেখানে তারা নির্যাতনের কথা জানায়। শিশুরা জানায়, তারা তাদের বাবা-মায়ের কাছে ফিরে যেতে চায়।

হাফিজাবাদ ইউনিয়নের পাঠানপাড়া গ্রামের দবিরুল ইসলাম বলেন, তিন শিশু জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পালিয়ে এসে আমার বাসায় আশ্রয় নেয়। এখানে হারিয়ে যাওয়া অনেক শিশু রয়েছে। তারা তাদের ঠিকানা বলতে পারে। বাবা-মায়ের কাছে যেতে চাইলে তাদের ওপর নির্যাতন করা হয়।

গাজিপুর উত্তরা রডমিল এলাকার দুখু মিয়ার ছেলে রাজন রহমান সাগর বলেন, আমি এলাকার একটি মার্কেটে গিয়েছিলাম। আমাকে হেলিকপ্টর ও প্লেনে উঠার কথা বলে নিয়ে এসে এখানে আটকে রাখে। একটু দোষ করলেই খুব মারে।

ঢাকার বিক্রমপুর এলাকার মুনির হোসেনের ছেলে ইমন আলী (৯) বলেন, আম্মু মারপিট করেছিল বলে আমি রাগ করে রেল স্টেশনে গিয়েছিলাম। সেখান থেকে রুবেল স্যার আমাকে ধরে নিয়ে আসেন। আমার বাবা-মা আমাকে খুঁজছেন। আমি বাসা যেতে চাইলে স্যার আমাকে মারপিট করেন।

ঢাকার আহছানিয়া মিশন শিশুনগরির আবাসিক তত্বাবধায়ক গৌরব কুমার দাস বলেন, পথশিশুদের ধরে এনে নিয়মানুবর্তিতার মধ্যে রাখা হয়েছে বলেই তারা আপনাদের মিথ্যা কথা বলছে। শিশুদের কোনওরকম নির্যাতন করা হয়নি। অনেক অভিভাবক স্বেচ্ছায় তাদের এখানে দিয়ে গেছেন।

শিশু নগরীর প্রোগ্রাম ম্যানেজার এম জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, শিশুনগরীর শিশুদের নির্যাতন করার কথা না, যদি কেউ করে থাকে তবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/জেবি/এমআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।