সন্ধ্যা ০৬:৩৫ ; রবিবার ;  ১৯ মে, ২০১৯  

রানার সম্পাদক টুটুল আর নেই

প্রকাশিত:

যশোর প্রতিনিধি

যশোরের স্থানীয় দৈনিক রানার পত্রিকার সম্পাদক আরএম মঞ্জুরুল আলম টুটুল (৪৮) আর নেই। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নওয়াপাড়া থেকে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

তার বন্ধু আজম খান টুলু জানান, সকাল ৮টার দিকে তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নওয়াপাড়ার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা টুটুলকে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। কিন্তু যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই টুটুল মারা যান।

আজম খান আরও জানান, কয়েকদিন ধরেই টুটুল বুকে ব্যথা অনুভব করছিলো।

মঞ্জুরুল আলম টুটুল শহীদ সাংবাদিক গোলাম মাজেদের ছেলে ও আরেক শহীদ সাংবাদিক আরএম সাইফুল আলম মুকুলের ভাই।

দুঃসাহসী লেখালেখির কারণে গোলাম মাজেদ স্বৈরশাসক এরশাদের শাসনামলে ১৯৮৪ সালে নিরাপত্তা বাহিনীর নির্যাতনে মৃত্যুবরণ করেন। গোলাম মাজেদের মৃত্যুর পর তার বড় ছেলে আরএম সাইফুল আলম মুকুল আলোচিত পত্রিকা দৈনিক রানারের সম্পাদকের দায়িত্ব নেন। ১৯৯৮ সালের ৩০ আগস্ট রাতে নিজ অফিসের কাছে দুর্বৃত্তদের বোমা ও গুলিতে নিহত হন সাইফুল আলম মুকুল। এরপর পত্রিকাটির হাল ধরেন গোলাম মাজেদের আরেক ছেলে আরএম মঞ্জুরুল আলম টুটুল। ২০০৪-২০০৫ সাল পর্যন্ত দৈনিক রানার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের দাপটশালী পত্রিকা হিসেবে টিকে ছিল। কিন্তু আর্থিক দৈন্যের কারণে আধুনিক প্রযুক্তি সংযোজনে ব্যর্থ হওয়ায় পত্রিকাটি আস্তে আস্তে বাজার হারায়। বর্তমানে দৈনিক রানার অনিয়মিতভাবে প্রকাশিত হয়।

মঞ্জুরুল আলম টুটুল বিভিন্ন সময় প্রেসক্লাব যশোরের সহ সভাপতি ও কার্যনির্বাহী সদস্য ছিলেন।

প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন জানান, সাংবাদিকসহ সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য বেলা ২টার দিকে মঞ্জুরুল আলমের মৃতদেহ প্রেসক্লাব চত্বরে আনা হবে। এশার নামাযের পর জানাজা শেষে বেজপাড়া কবরস্থানে বাবা, মা, ভাইয়ের কবরের কাছে তাকে সমাহিত করা হবে।

এদিকে, মঞ্জুরুল আলম টুটুলের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন যশোরের সাংবাদিক সংগঠনগুলো ছাড়াও রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোর নেতারা। সকাল থেকে বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা দৈনিক রানার কার্যালয়ে গিয়ে শোকাহত পরিবার-সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।

/বিএল/টিএন/

 

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।