রাত ০৮:১২ ; মঙ্গলবার ;  ১৬ জুলাই, ২০১৯  

চবি’র কাঁটা পাহাড়ে তিন দুষ্প্রাপ্য ফুল

প্রকাশিত:

লিপটন কুমার দেব দাস।।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঁটা পাহাড়ের রাস্তা ধরে প্রতিদিন ছুটে চলে শিক্ষার্থীর দল। দুই পাশে উঁচু পাহাড় আর তার মাঝ দিয়ে রাস্তা। কি অসাধারণ মিতালি এখানকার শিক্ষার্থী আর পাহাড়গুলোর! শিক্ষার্থীরা যেমন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের রত্ন, তেমনি পাহাড়গুলো ধারণ করে চলেছে অমূল্য সব দুষ্প্রাপ্য নিদর্শন।

জিওডোরাম ডেনসিফ্লোরাম, ইউলোপিয়া জেনিকাল্টা ও লিপোরিস নারভোসা। নামগুলো অর্কিডের। পৃথিবীর সবচেয়ে দুষ্প্রাপ্য কিছু অর্কিডের মধ্যে অন্যতম এই অর্কিডগুলো।

পৃথিবীতে এখন এই তিন প্রকারের অর্কিড খুঁজে পাওয়া যায় না বললেই চলে। এই তিন প্রজাতিকে বিলুপ্তপ্রায় অর্কিড হিসেবে আন্তর্জাতিকভাবেই ঘোষণা করা হয়েছে।

কাঁটা পাহাড় সব সময়ই নতুন সব প্রাণী আর উদ্ভিদের এক মহামূল্য হটস্পট। এখান থেকেই আবিষ্কার হয়েছে কয়েক প্রজাতির নতুন ব্যাঙ। ২০০৯ সালে এই পাহাড়েই আবিষ্কৃত হয় দুষ্প্রাপ্য এই অর্কিড তিনটি।

জিওডোরাম ডেনসিফ্লোরাম ‘নোডিং সোয়াম্প’ অর্কিড নামেও পরিচিত। এটি ছোট আকৃতির এবং দ্রুত বর্ধমান। অস্ট্রেলিয়ার রেইন ফরেস্ট এলাকায় এ জাতীয় অর্কিড বেশি জন্মে। তবে এ প্রজাতির কিছু অর্কিড ভারত, নেপাল, ভুটান, শ্রীলংকা, আসাম, মিয়ানমার, আন্দামান নিকোবার দ্বীপপুঞ্জ, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, তাইওয়ান, ইয়েমেন, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, ফিজি প্রভৃতি দেশেও সন্ধান পাওয়া গেছে।

ইউলোপিয়া জেনিকাল্টা প্রজাতির অর্কিড অত্যন্ত দুর্লভ। পৃথিবীর মাত্র কয়েকটি দেশ এর সন্ধান পেয়েছে বলে দাবি করেছে। তবে এই প্রজাতির অর্কিড চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঁটা পাহাড়ে পাওয়া সত্যিই বিস্ময়কর।

লিপোরিস নারভোসা অর্কিড এশিয়া, আফ্রিকা এবং আমেরিকার ক্রান্তীয় অঞ্চলে পাওয়া যায়। সাধারণত ঘাসভূমি এবং বনেও এই অর্কিড জন্মে থাকে। এই অর্কিডে tumorigenic pyrrolizidine নামক একপ্রকারের অ্যালকালয়েড থাকে।

চবির উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগে অর্কিড নিয়ে চলছে গবেষণা। ২০০৯ সালে এই বিভাগের অধ্যাপক ড. কামরুল হুদার নেতৃত্বে এই তিনটি অর্কিড খুঁজে পায় শিক্ষার্থীরা।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেনে একটি অর্কিডেরিয়ামও গড়ে তোলা হয়েছে। এখানে প্রায় ৬০ প্রজাতির অর্কিড নিয়ে গবেষণা করা হচ্ছে। তবে কাঁটা পাহাড় অঞ্চল থেকে আরও অন্তত ৩ প্রজাতির অর্কিড বিলুপ্ত হয়ে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

/এমবিআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।