রাত ১২:৩৯ ; মঙ্গলবার ;  ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯  

স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা শুরু শুক্রবার

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রযুক্তিপ্রেমীদের জন্য শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে তিন দিনব্যাপী স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা। মেলায় ৫টি প্যাভিলিয়ন, ৫টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ১১টি স্টলে সর্বশেষ উদ্ভাবিত স্মার্টফোন ও ট্যাব প্রদর্শিত হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানানো হয়। মেলাটির আয়োজন করছে এক্সপো মেকার।

এক্সপো মেকারের আয়োজনে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার নিয়ে দেশে এটা তৃতীয় মেলা। এবারের আয়োজনের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে আছে গ্রামীণফোন। কো-স্পন্সর হিসেবে থাকছে আসুস, হুয়াওই, লেনভো, স্যামসাং ও সিম্ফনি।

সংবাদ সম্মেলনে এক্সপো মেকারের হেড অব অপারেশনস নাহিদ হাসনাইন সিদ্দিকী বলেন, এবার আরও বড় আয়োজনে মেলায় পণ্য প্রদর্শন করা হবে। আরও আকর্ষণীয় করতে সর্বশেষ প্রযুক্তি ও মডেলের ডিভাইস প্রদর্শনীর পাশাপাশি মেলায় বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। বরাবরের মতো বিশেষ ছাড় তো থাকবেই।

স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার সহ-পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান স্যামস্যাংয়ের পরিবেশক ও স্মার্ট টেকনোলজিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জহিরুল ইসলাম, হুয়াওয়ের মার্কেটিং ও কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স ডিরেক্টর শাফায়েত আলম, লেনোভো’র পণ্য ব্যবস্থাপক খন্দকার খালিদ বিন আহমেদ, সিম্ফনির পরিচালক রেজওয়ানুল হক, আসুসের দেশীয় পণ্য ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ আল ফুয়াদ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

জহিরুল ইসলাম তার বক্তেব্যে বলেন, স্যামসাংয়ের সব ধরনের মোবাইল ও ট্যাব নিয়ে অামরা মেলায় অাসছি। মেলা উপলক্ষে থাকবে স্যামসাংয়ের বিশেষ প্রমোশন।

শাফায়েত আলম জানান, হুয়াওয়ে মেলায় ৩ মডেলের ট্যাব ও ৮টি স্মার্টফোন প্রদর্শন করবে। ট্যাব এবং স্মার্টফোনে থাকবে সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়।

মোহাম্মদ আল ফুয়াদ বলেন, মেলায় অামরা অাসুসের ফোন প্যাডের ওপর বেশি গুরুত্ব দেব। প্রতিটি পণ্যে থাকবে উপহার।

রেজওয়ানুল হক বলেন, দেশের স্মার্টফোনের বাজারের ৫০ শতাংশ সিম্ফনির দখলে। অামরা মেলায় সিম্ফনির ট্যাব ও স্মার্টফোন নিয়ে অাসব। প্রযুক্তিপ্রেমীদের জন্য থাকবে বিশেষ চমক।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে দর্শক-ক্রেতাদের জন্য মেলা উন্মুক্ত থাকবে। তবে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে বিকাল ৪ টায়। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ইয়াফেস মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

মেলার শেষ দিন ১৪ ডিসেম্বর বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এক্সপো মেকার ও বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরামের (বিআইজেএফ) আয়োজনে অনুষ্ঠিত হবে বিশেষ সংলাপ ‘কেমন ইন্টারনেট চাই?’। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এ ছাড়াও মেলার দ্বিতীয় দিনে 'ডিজিটাল মাধ্যমে গণমাধ্যমের অগ্রগতি' শীর্ষক একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু উপস্থিত থাকবেন বলে জানানো হয়।

মেলায় প্রথমবারের মতো মোবাইল গেমিং প্রতিযোগিতা থাকছে। এছাড়া অ্যাপ প্রদর্শনীর জন্য একটি অ্যাপ জোনও রাখা খোলা হবে।

ইতিমধ্যে মেলা উপলক্ষে ‘গেজ দ্য স্মার্টফোন কনটেস্ট’ নামে ফেসবুকে একটি প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। এতে বিজয়ীদের জন্য রয়েছে আকর্ষণীয় ট্যাব এবং স্মার্টফোন পুরস্কার।

মেলার পার্টনার হিসেবে থাকছে টেকশহরডটকম, এবিসি রেডিও, ট্রন, এখনই ডটকম, এডুমেকার, রাইজ আপ ল্যাবস। মেলার সহ-আয়োজক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং রিসোর্স পার্টনার বিআইজেএফ।

মেলায় প্রবেশমূল্য ২০ টাকা। তবে স্কুল শিক্ষার্থীরা ইউনিফর্ম পরা অবস্থায় এলে বা আইডিকার্ড দেখালে বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশ করতে পারবে।

মেলার সব তথ্য পাওয়া যাবে ফেসবুকের এই পেজে https://www.facebook.com/STExpo

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, শুক্রবার শুরু হয়ে তিন দিনব্যাপী এ মেলা চলবে রবিবার পর্যন্ত। দর্শনাথীদের জন্য প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত মেলা উন্মুক্ত থাকবে।

/এইচএএইচ/এএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।