বিকাল ০৪:০১ ; মঙ্গলবার ;  ২৩ এপ্রিল, ২০১৯  

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে রেডিও সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

লিপটন কুমার দেব দাস।।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেন থেকে নামতেই দুই জন সাংবাদিক আমার সামনে টেপরেকর্ডার বাড়িয়ে ধরল। একটু দূরে দেখা গেল ঝালমুড়ি বিক্রেতার সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন দুইজন। নিজে কি বলব তা ভাবতে ভাবতেই দেখি রিকশাওয়ালারও চলছে সাক্ষাৎকার। সংবাদের খোঁজে এসে নিজেকেই যে একটি সংবাদের ভক্সপপ দিতে হবে বুঝিনি। আশেপাশে সাংবাদিকদের টেপরেকর্ডার হাতে ছোটাছুটি দেখে মনে হল ক্যাম্পাসে বুঝি বড় ধরনের কোনও ঘটনা ঘটে গেছে।

পুরো ঘটনা বুঝতে কিছুটা দেরি হল। অদূরে দাঁড়িয়ে থাকা হাঙ্গেরিয়ান নাগরিক আত্তিলা মং আর বাংলাদেশের মাইনুল খানকে দেখে বুঝলাম আমি যে সংবাদ সংগ্রহ করতে এসেছি তারই প্রশিক্ষণ চলছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে সাতদিনব্যাপী ‘রেডিও সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ’ কর্মসূচি। ডয়েচে ভেলে অ্যাকাডেমি এবং যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের যৌথ প্রয়াসে চলছে এই প্রশিক্ষণ।

রেডিও সাংবাদিকতা বিষয়ে বাংলাদেশের তরুণদের আগ্রহ বাড়াতে এবং উপযুক্ত সাংবাদিক গড়ে তুলতেই এই প্রশিক্ষণের আয়োজন। যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৩য় ও ৪র্থ বর্ষ এবং মাস্টার্সের ১৫ জন শিক্ষার্থী এখানে অংশ নিয়েছেন। আর এদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন জার্মান সংবাদ মাধ্যম ডয়েচে ভেলে থেকে আসা আত্তিলা মং, আর সহপ্রশিক্ষক বাংলাদেশের মাইনুল খান।

প্রশিক্ষক আর প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের সাথে চলে গেলাম যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সেমিনারে। যেখানে চলছে এই প্রশিক্ষণের পাঠদান পর্ব। সকাল থেকে প্রায় একটানা ক্লাস করেও কারো মুখে যেন কোনও ক্লান্তির ছাপ নেই। সবাই যেন ভালোবেসে ফেলেছে কর্মসূচিটা। প্রশিক্ষকদের চোখে মুখেও তৃপ্তি আর ভালোলাগার ছোঁয়া স্পষ্ট।

প্রশিক্ষণে রেডিও প্রোডাকশনের সব কিছুই শেখানো হচ্ছে। ইন্টারভিউ, সাউণ্ড বাইট বাছাই, টাইম কোড, স্ক্রিপ্ট তৈরি, অ্যাম্বিয়েন্ট, ভয়েস ওভার, ফিনিসিং সহ সব ধরনের ব্যবহারিক এবং তাত্ত্বিক জ্ঞান।

প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া আকলিমা জান্নাত আরজু নামে এক শিক্ষার্থী জানালেন, এই কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে আমি রোমাঞ্চিত। অনেক নতুন জিনিস শিখতে পারছি। তবে প্রশিক্ষক দুজনের শেখানোর পদ্ধতি আমার সবচেয়ে ভালো লেগেছে। একটিবারের জন্যও চাপ অনুভব করিনি।

প্রশিক্ষণ কর্মসূচির সহ প্রশিক্ষক মাইনুল খান প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের পারফর্মেন্সে খুশি। তিনি বললেন, রেডিও প্রোডাকশনের সব কিছুই আমরা শেখাচ্ছি। দেশের রেডিও সাংবাদিকতা চর্চার ক্ষেত্রে এই প্রশিক্ষণ শিক্ষার্থীদের কাজে আসবে বলেই আমাদের বিশ্বাস।

ডয়েচে ভেলে অ্যাকাডেমি আর যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের যৌথ প্রয়াসে ২২-২৪ ডিসেম্বর এবং ২৬-২৮ তারিখে বিভাগের শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের একটি কর্মসূচি রয়েছে। যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান আলী আর রাজী জানান, শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকদের সাংবাদিকতা ও শিক্ষাদান পদ্ধতির উন্নয়নের জন্য তিনি তার সাধ্যমতো সব করবেন। পরবর্তীতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে টেলিভিশন সাংবাদিকতা বিষয়েও যৌথ প্রশিক্ষণের আয়োজন করবেন বলেও জানান তিনি।

এত সব বিষয়ে কথা বলে যখন ফিরে আসছি তখনও চলছে তরুণ একঝাঁক স্বপ্নবাজের স্বপ্নের পথচলা, রেডিও সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ। কি জানি হয়তো এদের মধ্য থেকেই কেউ একজন ডয়েচে ভেলের সাংবাদিক হিসাবে একদিন আমার মতামত জানতে চাইবে।

আলোকচিত্র: অনির্বাণ রায়

/এমবিআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।