সকাল ০৯:৪৩ ; সোমবার ;  ২৩ জুলাই, ২০১৮  

ছাত্রের বেতন দেড় কোটি টাকা!

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

আরশাদ আলী॥

ভিরমি খেতে পারেন বেতনের বহর শুনলে! ছাত্রের বেতন বছরে দেড় কোটি টাকারও বেশি। এ বছর ভারতের খড়গপুর আইআইটির এক ছাত্রকে এমনই বিশাল অঙ্কের বেতনের প্রস্তাব দিয়েছে একটি বিদেশি সংস্থা।

শোনা যাচ্ছে, এই বিদেশি সংস্থাটি হলো সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুক। তবে এখনই সেই ছাত্রের নাম বা কোম্পানি সম্পর্কে জানাতে রাজি নয় আইআইটি খড়গপুর। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির বক্তব্য, এতে ওই ছাত্রের প্রতি অহেতুক মনোযোগ বাড়বে মিডিয়ার।

আইআইটির ছাত্রদের বড় অঙ্কের বেতন অস্বাভাবিক নয়। কিন্তু তাই বলে দেড় কোটি? সোমবার ছিল আইআইটি খড়গপুরের ক্যাম্পাস প্লেসমেন্টের প্রথম দিন। মোট ২৭টি কোম্পানি এসেছিল এ দিন। ১৬৩ জনের ক্যাম্পাসিং হয়েছে।

দেশীয় সংস্থাগুলো থেকে সর্বোচ্চ ৪২ লাখ টাকার বার্ষিক বেতনের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তবে সব কিছুকে ছাপিয়ে গিয়েছে আড়াই লাখ ডলার বা প্রায় এক কোটি ৫৫ লাখ টাকার ওই প্রস্তাব। সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, খড়গপুর আইআইটিতে এখনও পর্যন্ত এটাই সর্বোচ্চ প্রস্তাবিত বেতন। দেশের সব ক’টি আইআইটির মধ্যেও এটির র‌্যাংকিং সর্বোচ্চ।

ক্যাম্পাসিংয়ের সময় দেশের আইআইটিগুলিতে ভিড় করে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। এসেছিল ভিসা, গোল্ডম্যান স্যাক্স, সিসকো, মাইক্রোসফট আইডিসি, ক্রেডিট সুইস-এর মতো সংস্থা। প্রথমবারের জন্য এসেছিল পার্থেনন, টিএসএমসি, বিএমজিআই, বেকার হিউজেস বা অক্টাস অ্যাডভাইসরস।

মোটা মাইনের অফার দিয়েছে তারাও। আইআইটি খড়গপুরের ক্যারিয়ার ডেভলপমেন্ট সেন্টারের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সুধীরকুমার বড়াই জানিয়েছেন, এই শিক্ষাবর্ষ থেকে স্নাতক স্তরের পড়ুয়াদের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর জন্য বেশ কয়েকটি বিষয়ে বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে। সে জন্য করপোরেট ওয়ার্কশপ, কেস স্টাডি কনটেস্ট, অ্যালামনাই মেন্টরশিপ সেশন, অ্যাসেসমেন্ট টেস্ট এবং সফট স্কিলের ট্রেনিং দেওয়া হয়েছে পড়ুয়াদের।

সংবাদ সংস্থাকে তিনি বলেন, ‘ক্যাম্পাসিংয়ের প্রথম দিনের সাফল্য বেশ ভালো। কোয়ালিটি ইঞ্জিনিয়ারিং, প্রোডাক্ট ডিজাইন এবং ম্যানুফ্যাকচারিংয়ে ভবিষ্যতে উচ্চশিক্ষিত ইঞ্জিনিয়ারদের প্রয়োজন পড়বে। আইআইটি খড়গপুর প্রয়োজনগুলোকে চিহ্নিত করে সেই অনুযায়ী চলছে। যে সংস্থাগুলো ক্যাম্পাসিংয়ে এসেছে, তারা যথেষ্ট উৎসাহ জুগিয়েছে।

/এইচএএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।