দুপুর ০২:৫৯ ; বৃহস্পতিবার ;  ২৭ জুন, ২০১৯  

জগন্নাথে ক্যারিয়ার সেমিনার

প্রকাশিত:

নাহিয়ান আশফাক।।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব এবং প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউটের যৌথ উদ্যোগে প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট এর আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার এর বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিএমআই বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট এস এম আলতাফ হোসাইন।

সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন জবি ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোশাররফ হোসাইন, ক্যারিয়ার ক্লাবের সভাপতি সহযোগী অধ্যাপক মো. মহিউদ্দিন, সমন্বয়ক সহকারী অধ্যাপক মো. শহীদুল ইসলাম।

মোশাররফ হোসাইন তার বক্তব্যে বলেন, “শিক্ষার্থীদেরকে এ রকম আরও সেমিনার করতে হবে। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। তিনি জবি ক্যারিয়ার ক্লাবের সাফল্য কামনা করেন”।

সভাপতির বক্তব্যে মো. মহিউদ্দিন শিক্ষার্থীদেরকে কর্পোরেট পৃথিবীতে বিচরণ করতে উৎসাহিত করেন।

প্রধান বক্তা এসএম আলতাফ হোসাইন তার আকর্ষণীয় এবং মনোমুগ্ধকর কথায় মাতিয়ে রাখেন শিক্ষার্থীদেরকে। তিনি বর্তমান যুগের, বর্তমান সময়ের ক্যারিয়ারের প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন এবং শিক্ষার্থীদেরকে এই অবস্থা মোকাবিলা করার অনুপ্রেরণা দেন।

সবশেষে তিনি ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থীদেরকে আরও দক্ষ করে তোলার পিছনে পি এম আই এবং তার ব্যক্তিগত সহযোগিতার কথা জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জহির উদ্দিন আরিফ।

জবি ক্যারিয়ার ক্লাবের প্রেসিডেন্ট হাফিজুর রহমান শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, “জবি ক্যারিয়ার ক্লাব এর আগেও শিক্ষার্থীদের কথা ভেবেই বিভিন্ন ওয়ার্কশপ, সেমিনার এবং কনফারেন্সের আয়োজন করেছে এবং ভবিষ্যতে এর সংখ্যা আরও বাড়বে বলে তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

সেমিনারে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব টিমের কাছ থেকে ধারাবাহিকভাবে আরও ৩ থেকে ৪ টি অনুষ্ঠান আয়োজনের ঘোষণা আসে।

উল্লেখ্য, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব ২০১১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়ে ইতোমধ্যেই শিক্ষার্থীদের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এই কয়েক বছরে এই ক্লাব প্রায় ১২ টি সেমিনার, ওয়ার্কশপ, এবং সিভি রিভিউ সংক্রান্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে জবি শিক্ষার্থীদের জন্য। ভবিষ্যতে খুব শিগগিরই তারা জব ফ্যাস্টিভাল আয়োজনের কথা ভাবছে। মাত্র ৮ জন থেকে শুরু করা এই ক্লাব এখন প্রায় ৪৫ জন তরুণের এক বিশাল পরিবার।

/এমবিআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।