দুপুর ১২:৪৪ ; বুধবার ;  ২২ মে, ২০১৯  

স্বাধীনতার ৪৩ বছরেও আন্তর্জাতিক মানের হাসপাতাল হয়নি: আনু মুহাম্মদ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি॥

'স্বাধীনতার ৪৩ বছর পরও দেশে একটি আন্তর্জাতিক বা উন্নতমানের হাসপাতাল নির্মিত হয়নি। মন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতিরা অসুস্থ হলে বিদেশে চলে যান। কিন্তু একটা ভালো হাসপাতাল করার ইচ্ছা তাদের এত বছরেও জাগ্রত হয়নি।' এ মন্তব্য করেছেন তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমির হলরুমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ভাষাসংগ্রামী আব্দুল মতিন স্মরণসভা কমিটি আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, 'বাংলাদেশের চেয়ে অনেক কম সম্পদ নিয়েও কিউবার মতো ছোট রাষ্ট্র তাদের সব নাগরিকদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করেছে।'

তিনি বলেন, 'আমাদের খনিজ সম্পদ উত্তোলনে সক্ষম প্রকৌশলী এই ৪৩ বছরে তৈরি হয়নি। বঙ্গোপসাগরে আমাদের যে গ্যাস রয়েছে তা উত্তোলন করতে পারলে শত বছরের জ্বালানি নিশ্চিত হতো। কিন্তু এ সম্পদ উত্তোলনে আমাদের দক্ষ প্রকৌশলী নেই।'

তিনি আরও বলেন, 'যে রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে লুটেরা, দখলদার, সামরিক শাসন, স্বৈরতন্ত্র অটল রূপ পেয়েছে। সেই রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার ভাঁজে ভাঁজেই যুদ্ধাপরাধীরা এত বছর ধরে তাদের রাজনীতি ধরে রেখেছে।'

সভায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ভাষাসংগ্রামী আব্দুল মতিন স্মরণসভা কমিটির আহবায়ক কমরেড মতিলাল বণিকের সভাপতিত্ব করেন। এতে অনুশীলন সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক আবদুন নূরের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন কমিটির সদস্য সচিব অ্যাডভোকোট নাসির মিয়া।

এছাড়া জেলা জাসদ সভাপতি অ্যাডভোকেট আকতার হোসেন সাঈদ, ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজী মাসুদ আহমেদ, ঐক্য-ন্যাপ সভাপতি প্রবীর কুমার দেব, সিপিবি নেতা ঈসা খাঁন ও নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চার আহবায়ক সৈয়দ সালাউদ্দিন মুকুল সভায় বক্তব্য রাখেন।

/এমডিপি/এফএ

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।