সকাল ১০:২৩ ; রবিবার ;  ২১ এপ্রিল, ২০১৯  

জাতিসংঘের ছায়া অধিবেশনে যোগ দিন

প্রকাশিত:

আসাদুজ্জামান লিমন।।

জাতিসংঘের অধিবেশন বসছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। এই অধিবেশনে বাংলাদেশসহ জাতিসংঘ ভূক্ত অন্যান্য দেশের সদস্যরা অংশ নেবেন। প্রায় পাঁচশো ডেলিগেট নিয়ে বসছে এবারের অধিবেশন। প্রিয় পাঠক খবরটি পড়ে ভড়কে গেলেন বুঝি? জাতিসংঘের অধিবেশন ঢাকায় হওয়ার কথা নয়, তাইতো? হয়তো কোন দিন জাতিসংঘের অধিবেশন ঢাকায়ও বসতে পারে। তবে সেটা সুদূরে। তবে খবরটা কিন্তু একদম ডাহা মিথ্যে নয়। জাতিসংঘের অধিবেশন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বসছে ঠিকই। কিন্তু সেটা জাতিসংঘের আদলে। অর্থাৎ জাতিসংঘের ছায়া অধিবেশন। এই অধিবেশনের আয়োজক ঢাকা ইউনিভার্সিটি ন্যাশনাল মডেল ইউনাইটেড ন্যাশন (ডানমুন)।

‘জাতিসংঘ যেমন তার সদস্যদের নিয়ে অধিবেশন করে। তেমনি আমরাও দেশ-বিদেশের ডেলিগেট নিয়ে ছায়া অধিবেশনের আয়োজন করেছি। জাতিসংঘের মতোই অধিবেশনে বিভিন্ন বিষয়ের উপর আলোচনা হবে। এই যেমন ধরুন জলবায়ু পরিবর্তন, পরিবেশরক্ষা আন্দোলন, স্বাস্থ্য, চিকিৎসা, মানবাধিকারসহ অনেক বিষয় আলোচনায় উঠে আসবে। যেমনটা হয় জাতিসংঘের অধিবেশনে।’ বলছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সাদিয়া আফরিন প্রমা। তিনি ডানমুনের সদস্য হিসেবে কাজ করছেন।

‘এমপাওয়ারিং ইয়ুথ ফর সাসটেনেবল ডেভেলপমেন্ট’ স্লোগানে ২১ থেকে ২৪ ডিসেম্বর এই অধিবেশন বসবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবন মিলনায়তনে। এই অধিবেশন শুধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। অষ্টম শ্রেণি থেকে স্নাতকোত্তর পড়ুয়া যে কেউ অধিবেশনে অংশ নিতে পারবে। চূড়ান্ত অধিবেশনে অংশ নিতে চাইলে প্রাথমিক বাছাইয়ে উতরে যেতে হবে। প্রাথমিক বাছাইয়ের জন্য নিবন্ধিত হতে হবে। ৩০ টাকার বিনিমেয়ে আবেদন ফর্ম পাওয়া যাবে টিএসসির আঙ্গিনা থেকে। এছাড়া ডানমুনের ওয়েব সাইট থেকেও প্রাথমিক আবেদন ফর্ম সংগ্রহ করা যাবে। আবেদন ফর্মে কিছু প্রশ্ন দেয়া আছে। এসব প্রশ্নের উত্তর যারা ঠিকঠিক দিতে পারবে। তারাই কেবল চারদিন ব্যাপী অধিবেশনে অংশ নিতে পারবে। সেক্ষেত্রে অধিবেশনে অংশ নেয়ার ফি বাবদ দুই হাজার পাঁচশো টাকা চাঁদা দিতে হবে।

ডানমুনের সদস্য এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পপুলেশন সাইন্স বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ওযায়েক জানান, তৃতীয় বারের মতো মডেল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। অধিবেশনে পাঁচশো শিক্ষার্থীকে অংশ নেয়ার সুযোগ দেয়া হবে। ইতোমধ্যে ১১টি দেশ থেকে ডেলিগেট আসবে বলে তারা নিশ্চিত করেছে। বিদেশি ডেলিগেটদের জন্য ৪০ ডলার ফি রাখা হয়েছে। আর ডানমুনের সদস্যদের জন্য চাঁদা দুই হাজার টাকা।

চারদিনের এই অধিবেশনে শিক্ষার্থীরাই স্বস্ব দেশের প্রতিনিধি হিসেবে নিজেদের উপস্থাপন করবে। তাদের আলোচনায় উঠে আসবে পৃথিবীর সমসাময়িক সমস্যার অনেকটাই। এসব সমস্যার সমাধানটাও তারা খুঁজে পেতে চেষ্টা করবে।

চারদিনের অধিবেশনে যারা নিজেদেরকে ভালোভাবে উপস্থাপন করতে পারবে তাদের জন্য বাড়তি পাওনা রয়েছে। সেরা ১০০ জনকে বিদেশি ডেলিগেটদের সঙ্গে প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিন ঘুরে বেড়ানোর জন্য নিয়ে যাওয়া হবে। ভ্রমণ বাবদ পাঁচহাজার টাকা চাঁদা দিতে হবে।

সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী তিথি জানান, এই অধিবেশন আয়োজন ও অংশগ্রহণের মাধ্যমে একজন শিক্ষার্থীর নেতৃত্বের গুণাবলি বিকশিত করার সুযোগ রয়েছে। এছাড়া জড়তা দূর করে নিজেকে উপস্থাপন করার মাঝেও আত্মবিশ্বাসের পরিচয় ফুটে ওঠে। অধিবেশনে অংশ নিয়ে শিক্ষার্থীরা নানা ভাবে উপকৃত হবে।

চারদিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠান সকাল নয়টা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত চলবে। অধিবেশনে ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ ও বৈকালিন নাস্তার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। অধিবেশনের শেষ রাতে জমকালো ডিনারের আয়োজন করা হবে। এছাড়া অধিবেশন শেষে প্রতি সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছ। অধিবেশনে অংশ নেয়ার জন্য প্রাক-প্রস্তুতিমূলক ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষকরাই ডানমুন পরিচালনা করে আসছে। তাদের কর্মী হিসেবে কাজ করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। যারা ডানমুনের সদস্য।

এই আয়োজনের সঙ্গে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘দ্যা ইস্ট এশিয়া স্টাডি সেন্টার’ এবং ‘ইউএনআইসি ঢাকা’। ডানমুন-২০১৪ এর সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করবেন এম জে সোহেল। সঞ্চালক হিসেবে থাকবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসি আ আ স ম আরেফিন সিদ্দিকী। জাতিসংঘের ছায়া অধিবেশনে অংশ নিতে চাইলে ২৫ নভেম্বরের মধ্যে নিবন্ধিত হতে হবে।

তরুণদের মধ্যে অনেকে আছেন স্বপ্নচারী। স্বপ্ন দেখতে ও তা বাস্তবায়ন করতে তারা বদ্ধপরিকর। তাদের কেউ কেউ হয়তো ভবিষৎতে জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন। তাদের জন্য এই ছায়া অধিবেশন পথ দেখাবে। কি করে স্বপ্নকে লালন করতে হয় সেটাও জানিয়ে দেবে।

ডানমুনের ওয়েব অ্যাড্রেস: www.dunmun.com

এমবিআর

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।