রাত ০৪:৩৫ ; রবিবার ;  ২১ জুলাই, ২০১৯  

প্রথম যৌনমিলন আবিষ্কার!

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বিজ্ঞান ডেস্ক॥ প্রথম কবে প্রাণী এসেছিল? প্রথম কবে এসেছিল প্রেম? সামান্য গলা খাঁকারি দিয়ে এবার জিজ্ঞেস করাই যায়, প্রথম কবে শারীরিক সম্পর্কটা হয়েছিল? অন্ধের মতো এতদিন শেষ প্রশ্নটার উত্তরই খুঁজেছেন অস্ট্রেলিয়ার ফ্লিন্ডার্স ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানী অধ্যাপক জন লং। পেয়েছেনও! জানা গেল, প্রথম যৌনমিলন হয়েছিল সাড়ে ৩৮ কোটি বছর আগেকার প্ল্যাসোডার্মস নামের একটি জলজ প্রাণীর মধ্যে। শক্ত চে‌‌‌ায়ালের প্রাগৈতিহাসিক এ প্রাণীটাকেই ধরা হয় তাবৎ প্রাণীকূলের পূর্বপুরুষ। গবেষণায় দেখা গেল শারীরিক সম্পর্কের সূত্রটাও এসেছে এর কাছ থেকে। প্রাচীনতম মিলনসূত্রের বৃত্তান্ত ছাপা হয়েছে জার্নাল ন্যাচার-এ। প্ল্যাসোডার্মসের মিলন প্রক্রিয়া সম্পর্কে জন লং যা জানতে পেরেছেন তার ব্যাখ্যা করা যায় এভাবে- আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে যখন একটা স্পেসশিপ এসে ভিড়তে চায়, তখন স্টেশনের এক পাশে দরজা খুলে যায়। নতুন মহাকাশযানটা তখন স্টেশনের পাশে নির্দিষ্ট পয়েন্টে নিজেকে জুড়ে দিয়ে 'ডক' করে। সায়েন্স ফিকশন ছবিতেও এ দৃশ্য দর্শক দেখেছে বহুবার। আর স্পেসশিপের ওই ডকিং প্রক্রিয়ার মতোই শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতো প্ল্যাসোডার্মসরা। পুরুষ প্ল্যাসোডার্মসের ফসিল ঘেঁটে জন লং দেখেছেন ওদের মধ্যে ছিল ইংরেজি 'এল' অক্ষরের মতো দেখতে পুলিঙ্গ। পাশ থেকে যেটা মহাকাশযানের মতোই স্ত্রী প্ল্যাসোডার্মসের শরীরের নির্ধারিত অংশে 'ডক' করে পাঠিয়ে দিত শুক্রাণু। “জলজ প্রাণী দুটো যখন একে অন্যের সঙ্গে মিলিত হতো তখন তাদের দেখে মনে হতো ওরা বুঝি হাতে হাত রেখে স্কোয়ার ড্যান্সিং স্টাইলে নাচছে।” জানালেন জন লং। শক্ত খোলসের ক্ষুদ্রাকৃতিক প্ল্যাসোডার্মসের সময়কাল এত আগের যে ওই সময় অন্য কোনও প্রাণীই ছিল না। আর তাদের যাবতীয় বৈশিষ্ট্যগুলো পরবর্তীতে বিবর্তনের মাধ্যমে অন্যান্য প্রাণীর ভেতর চলে আসে। আর তাই এ মিলন প্রক্রিয়াকে পৃথিবীর প্রথম যৌনমিলন দাবি করার নেপথ্যে বিবর্তনকেই অকাট্য যুক্তি হিসেবে দেখিয়ে‌‌‌ছেন বিজ্ঞানী জন লং। সূত্র: সায়েন্স ডেইলি /এফএ/  

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।