দুপুর ০১:৩৪ ; বুধবার ;  ২২ মে, ২০১৯  

কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ: খুলনায় ৪ লাখ শিশুকে খাওয়ানো হবে ট্যাবলেট

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

খুলনা প্রতিনিধি॥ জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ রবিবার থেকে শুরু হয়েছে। এ কার্যক্রমের আওতায় মহানগরীসহ খুলনা জেলায় প্রায় ৪ লাখ শিশুকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ৫ থেকে ১২ বছর বয়সী শিশুদের এই কার্যক্রমের আওতায় ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হবে। খুলনা সিভিল সার্জন অফিসের তত্ত্বাবধায়ক এস এম সামসুর রহমান বলেন, 'জেলার ৯টি উপজেলায় এ কার্যক্রমের আওতায় ২ লাখ ৮২ হাজার ৫শ ৪১ শিশুকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হবে। ১ হাজার ৮শ ৪৯টি স্কুল, মাদ্রাসা, মক্তব ও কিন্ডারগার্টেনে এই কার্যক্রম চলছে।' কেসিসির মেডিকেল অফিসার ডা. স্বপন কুমার হালদার বলেন, 'কর্মসূচির আওতায় খুলনা মহানগরীর ৫০৫টি বিদ্যালয়, মাদ্রাসা, মক্তব ও কিন্ডার গার্টেনে ৯৩ হাজার ৮শ ৭২ জন শিশুকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। রবিবার সকালে খুলনা জেলা প্রশাসক আনিস মাহমুদ ডুমুরিয়া উপজেলার ঝিলেরডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একটি শিশুকে ট্যাবলেট খাওয়ানোর মধ্য দিয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এসময় সিভিল সার্জন ডা. ইয়াসিন আলীসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে সকাল ৯টায় মহানগরীতে কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহের উদ্বোধন করেন মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান। তিনি মতিয়াখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একটি শিশুকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ান। সিটি মেয়র বলেন, শিশুদের শারীরিক বৃদ্ধি ও মানসিক বিকাশের জন্য কৃমি নিয়ন্ত্রণ অপরিহার্য। কৃমি আমাদের খাবারের পুষ্টি খেয়ে ফেলে ও রক্ত শোষণ করে। ফলে মারাত্মক স্বাস্থ্যহানী দেখা দেয়। তিনি শিশুদের স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করে কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ সফল করতে সংশ্লিষ্টদের নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন সহ অভিভাবক ও শিক্ষকদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। /একে/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।