রাত ১১:১৩ ; বৃহস্পতিবার ;  ১৮ এপ্রিল, ২০১৯  

৫০০ কোটি টাকার কী হবে?

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥ অান্তর্জাতিক ইনকামিং কলরেট ৬ মাসের জন্য অর্ধেক অর্থাৎ ৩ সেন্ট থেকে কমিয়ে দেড় সেন্ট করা হয়েছে।

গত মাসের ১৮ তারিখে প্রধানমন্ত্রী এ প্রস্তাব অনুমোদন করেন। ওইদিন থেকেই এটি কার্যকর হয়েছে। অনুমোদন অনুসারে ২০১৫ সালের ১৮ মার্চ পর্যন্ত এই অনুমোদন কার্যকর থাকার কথা।

কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনকে তোয়াক্কা না করে গত ১ জুলাই থেকে কলরেট অর্ধেক করা হয়েছে। পুরনো এবং নতুন রেটের এই ‌'সময় গ্যাপের' কারণে সরকারের ৫০০ কোটি টাকা হাওয়া হয়ে গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে ডাক, টেলিযোগাযোগ এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী প্রভাব খাটিয়ে নতুন রেট কার্যকরের তারিখ ১ জুলাই করেছেন। অার এতে করে দেশে কল অানা গেটওয়ে অপারেটরগুলো রাজস্ব ভাগাভাগি হিসেবে সরকারকে ৫০০ কোটি টাকা কম দিচ্ছে।

এরই মধ্যে কয়েকটি গেটওয়ে প্রতিষ্ঠান মোবাইলফোন অপারেটরগুলোকে গত ১ জুলাইয়ের হিসেবে নতুন রেটে বয়েকা বিল পরিশোধ করেছে। এতে করে ব্যবসায়িক ক্ষতির মুখে পড়তে যাচ্ছে মোবাইলফোন অপারেটরগুলো।

এই নিয়ম মানা হলে গ্রামীণফোন ৪৭, রবি ২২ এবং বাংলালিংকের ১৫ কোটি টাকা ক্ষতি হবে।

প্রসঙ্গত, দেশের অবৈধ ভিওআইপি (ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রটোকল) রোধে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিঅারসি কলরেট ৫০ শতাংশ কমানোর উদ্যোগ নেয়।

এ উদ্যোগের ফলে ভিওআইপি কলে রাজস্ব ভাগাভাগির রেটও (রাজস্ব ভাগাভাগি ৫১ থেকে ৪০ শতাংশ) কমেছে।

/এইচএএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।