রাত ০২:৩০ ; রবিবার ;  ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯  

'বিয়ের বয়স কমালে মা ও শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি বাড়বে'

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

খুলনা প্রতিনিধি॥

মন্ত্রী পরিষদ সভায় অনুমোদিত বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৪ নিয়ে গভীর উদ্বেগ ও বিস্ময় প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা খুলনা।

মঙ্গলবার এক লিখিত বক্তব্যে সংস্থাটি জানায়, বিয়ের বয়স কমানো হলে মাতৃ ও শিশুমৃত্যু ঝুঁকিসহ নারীর জীবনে নানা নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কা সৃষ্টি হবে।

এতে আরও বলা হয়েছে, মেয়েদের বিয়ের বয়স কমানো হলে নারীর প্রতি সহিংসতা, মাতৃমৃত্যুর ঝুঁকি, অপরিণত গর্ভধারণ, প্রসবকালীন শিশু মৃত্যুঝুঁকি, প্রজনন স্বাস্থ্য সমস্যা, নারীশিক্ষার হার হ্রাস, স্কুল থেকে ঝরে পড়ার হার বৃদ্ধি, নারীদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার ক্ষমতা ও সুযোগ কমে যাওয়াসহ বহুবিধ নেতিবাচক প্রভাব নারীর জীবনে পড়ার আশঙ্কা থাকবে। এছাড়াও এমডিজির ২, , ৪ ও ৫ নম্বর লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হবে এবং বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ পিছিয়ে পড়বে।

তবে বাল্যবিবাহ আইন ২০১৪-এর খসড়ায় সাজা ৩ মাস থেকে ২ বছর এবং জরিমানা ১ হাজার টাকা থেকে বৃদ্ধি করে পঞ্চাশ হাজার টাকা নির্ধারণ করাকে ইতিবাচক হিসেবে জানিয়েছেন তারা। কিন্তু বিয়ের ন্যূনতম বয়স কমানোর প্রস্তাব কার্যকর হলে বাল্যবিবাহের বিভিন্ন ক্ষতিকারক প্রভাবের ফলে আইন বাস্তবায়নের মূল উদ্দেশ্যই ব্যাহত হবে।

উলেখ্য, খসড়ায় বিয়ের বয়স মেয়েদের ক্ষেত্রে ১৮ থেকে ১৬ এবং ছেলেদের ক্ষেত্রে ২১ থেকে ১৮ বছর নির্ধারণ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

/এসএ/এফএ

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।