রাত ০৪:২০ ; বৃহস্পতিবার ;  ১৭ অক্টোবর, ২০১৯  

কুংফু মানেই মারপিট নয়- ঋদ্ধি দত্ত

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

আত্মরক্ষার বিষয়ে কতোটা প্রস্তুত আমরা? আমরা কি জানি, নিজেদের কিভাবে রক্ষা করবো দুর্ধর্ষ মানুষগুলোর হাত থেকে! অনেকেরই জানা নেই সেই কৌশল। এই কৌশল জানানো জন্যই মার্শাল আর্ট শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেশি। ব্যাগে কিংবা পকেটে থাকা একটা কাগজও হতে পারে দুঃসময়ে আপনার ত্রাণকর্তা। আবার দুষ্কৃতিকারীদের বন্দুকের সামনে আপনার হাতের কলমও হতে পারে আপনার অস্ত্র। এসব শিক্ষার জন্যই মার্শাল আর্টের প্রয়োজনীয়তা অনেক।

সাধারণের ধারনা মাশার্ল আর্টস মানেই মারপিটের কৌশল। কুংফু, মার্শাল আর্টস, বক্সিং- সব একই। এমনটা মোটেই নয়। অন্যসব শিল্পের মতো এ শিল্পেরও রয়েছে বিশেষ আবেদন, ভাষা আর নানান ধরনের ঘরানা। মাশার্ল আর্টস শুধু নিজেকে রক্ষা আর প্রতিপক্ষকে আক্রমণের কৌশলই শেখায় না, এটি বদলে দেয় জীবনযাপনের প্রতিটি ধাপকে।

[caption id="attachment_56831" align="alignleft" width="577"]সাধারণের ধারনা মাশার্ল আর্টস মানেই মারপিটের কৌশল। কুংফু, মার্শাল আর্টস, বক্সিং- সব একই। এমনটা মোটেই নয়। অন্যসব শিল্পের মতো এ শিল্পেরও রয়েছে বিশেষ আবেদন, ভাষা আর নানান ধরনের ঘরানা সাধারণের ধারনা মাশার্ল আর্টস মানেই মারপিটের কৌশল। কুংফু, মার্শাল আর্টস, বক্সিং- সব একই। এমনটা মোটেই নয়। অন্যসব শিল্পের মতো এ শিল্পেরও রয়েছে বিশেষ আবেদন, ভাষা আর নানান ধরনের ঘরানা[/caption]

উইংচুং গুংফু, হেই লিন উশু, ক্যারাতে, কালি, বক্সিং, শাওলিন- এসবই মার্শাল আর্টের একেকটা ঘরানার নাম। একটা আরেকটা ফর্ম থেকে একেবারেই আলাদা। কিন্তু এদের মধ্যকার পার্থক্যগুলো আমাদের দেশের মানুষ খুব কমই জানে। মার্শাল আর্ট মানেই আমাদের দেশে মারপিটের শিক্ষা। তবে ধীরে ধীরে বদলাতে শুরু করেছে চিত্র। মার্শাল আর্টের নানা মাধ্যমের প্রতি এখন বেশ আগ্রহ তরুণদের। তবে বাংলাদেশে যথাপোযুক্ত মার্শাল আর্টস ইন্সটিটিউট আছে খুব কম। আর আন্তর্জাতিক মানের ইন্সটিটিউট তো নেই বললেই চলে। তবে ভালো খবর হচ্ছে, মার্শাল আর্টসে আগ্রহীদের সেই আক্ষেপ ঘুঁচতে যাচ্ছে। বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন প্রতিষ্ঠান ম্যাকস কুংফু ইন্সটিটিউট।

ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট ইন্ডিয়ার কান্ট্রি ডিরেক্টর গুরু ঋদ্ধি দত্ত এই সুবাধে কিছুদিন আগেই বাংলাদেশে এসে ঘুরে যান। সেই সময় তিনি কথা বলেন বাংলা ট্রিবিউন লাইফস্টাইলের সঙ্গে। জানান, বাংলাদেশে তরুণ প্রজন্ম মার্শাল আর্ট শিক্ষার মধ্য দিয়ে নিজেদের যেমন সুরক্ষিত রাখতে পারবে, তেমনি জীবনকে করতে পারবে সুশৃঙ্খলিত এবং নিয়ন্ত্রিত। তাই এই প্রজন্মকে ‌‌‌এই শিল্পের দীক্ষা দেয়ার প্রত্যয়েই বাংলাদেশে আসা তার।

[caption id="attachment_56839" align="alignright" width="336"]ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট ইন্ডিয়ার কান্ট্রি ডিরেক্টর গুরু ঋদ্ধি দত্ত ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট ইন্ডিয়ার কান্ট্রি ডিরেক্টর গুরু ঋদ্ধি দত্ত[/caption]

ঋদ্ধি দত্ত জানান, বাংলাদেশে খুব শিগগিরই কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউ। যেখানে মার্শাল আর্টের বিভিন্ন ঘরানার প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট বাংলাদেশের ট্রেইনারের দায়িত্বে থাকবেন শাহেদ খান। দীর্ঘ সময় ধরে ঋদ্ধি দত্তের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন শাহেদ খান। শাহেদ বাংলাদেশের, আর ঋদ্ধি দত্ত থাকেন কলকাতায়। অনলাইনেই এই গুরু শিষ্যর পরিচয়। এরপর ভার্চুয়ালিই শিক্ষা নেয়া। সম্প্রতি প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে আসেন ভারতীয় এই কুংফু মাস্টার। তখনই গুরু ঋদ্ধি দত্তের কাছ থেকে হাতে-কলমে শিক্ষা নেন শাহেদ খান।

[caption id="attachment_56983" align="alignleft" width="378"]ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট ইন্ডিয়ার কান্ট্রি ডিরেক্টর গুরু ঋদ্ধি দত্ত ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট ইন্ডিয়ার কান্ট্রি ডিরেক্টর গুরু ঋদ্ধি দত্ত[/caption]

ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট বাংলাদেশে দেয়া হবে মার্শাল আর্টের নানা মাধম্যের পাঠ। আত্মরক্ষা থেকে শুরু করে জীবন যাপনের নানান ধাপে মার্শাল আর্টের প্রয়োগেও শেখাবে তারা। সেই সঙ্গে দেশের বাইরে থেকে আসা মার্শাল আর্ট মাস্টারদের নিয়ে হবে নিয়মিত সেমিনার। প্রশিক্ষণ শেষে অংশগ্রহণকারীরা পাবে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন সার্টিফিকেট। মাশার্ল আর্ট শেখায় আগ্রহীরা ম্যাক্স কুংফু ইন্সটিটিউট বাংলাদেশের ইন্সট্রাক্টর শাহেদ খানের সঙ্গে ০১৯১১১৩৪২৬৭ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন।

ছবি: সাজ্জাদ হোসেন

এআর/ আরএফ 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।