সকাল ০৯:৪০ ; সোমবার ;  ২৩ জুলাই, ২০১৮  

অাইফোন ক্রেজ প্লাস

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

রুশো রহমান॥ অাইফোন নিয়ে উন্মাদনার শেষ নেই। এ চিত্র বারবারই দেখছে প্রযুক্তি বিশ্ব। অাইফোনে কী এমন অাছে যে তা নিয়ে এই ক্রেজ, উন্মাদনা। অাইফোন সিরিজের একেকটা মডেল বাজার অাসছে অার উন্মাদনার মাত্রা অাগেরটিকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

অাইফোন পেতে উন্মাদনা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে কিডনি বিক্রি করেও অাইফোন কেনার মতো ঘটনার স্বাক্ষী এই বিশ্ব। এবার সর্বশেষ অাইফোন-৬ এর কথাই বলি। এটির ক্ষেত্রেও উন্মাদনা অাগের সবগুলোকে ছাড়িয়ে যাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

apple-iphone-6-plus-3

তারা বলছেন, নতুন আইফোনে বেশ কিছু আকর্ষণীয় ফিচার যুক্ত হয়েছে। নতুন অ্যাপস ও নানা সুযোগ-সুবিধাসহ আইফোনের এই দুটো নতুন মডেল দিয়ে হয় তো অ্যাপল তার ক্রেতাদের বেঁধে ফেলতে পারবে।

নতুন এই আইফোনে রয়েছে ১০টি আকর্ষণীয় ফিচার। এর মধ্যে রয়েছে রেটিনা এইচডি ডিসপ্লে, আইওন শক্তির স্ক্রিন, দ্বিতীয় প্রজন্মের ৬৪ বিটের প্রসেসর, মেটাল এপিআই, এম৮ হেলথ চিপ, উন্নত ব্যাটারি, দ্রুতগতির ওয়াইফাই, উন্নত ক্যামেরা, সেলফি ক্যামেরা ও আইওএস৮।

apple-iphone-6

ব্যাটারির ক্ষেত্রে দেখানো হয়েছে ভিন্ন চমক। এতে একবার চার্জ দিলে টানা ৫০ ঘণ্টা গান শোনা কিংবা ১১ ঘণ্টা ভিডিও দেখা যাবে। সেলফিপ্রেমীদের জন্যও রয়েছে অাকর্ষণীয় ফিচার। এবার এতে যুক্ত হয়েছে বিল্ট ইন পেমেন্ট সিস্টেম। কোনো রকম কার্ড বা টাকা ছাড়া আইফোন দিয়ে মাত্র এক ক্লিকে পেমেন্ট করা যাবে।

.৭ ইঞ্চি পর্দার আইফোনের পুরুত্ব ৬.৯ এবং ৫.৫ ইঞ্চির ৭.১ মিলিমিটার। এর আগের আইফোন ৫এস -এর পুরুত্ব ছিল ৭.৬ মিলিমিটার।

দুটি ফোনেই অপারেটিং সিস্টেমে হিসেবে রয়েছে আইওএস ৮। ৬৪বিট অ্যাপল এ৮ চিপ ব্যবহার করা হয়েছে যা আগের আইফোন সংস্করণ থেকে ১৩ ভাগ ছোট, কিন্তু ২০ গুণ বেশি শক্তিশালী। গ্রাফিক্সের মানও ৫০ শতাংশ উন্নত।

apple-770

আইফোন ৬-এ অ্যাপল দিচ্ছে ৮ মেগাপিক্সেল আইসাইট ক্যামেরা, ট্রু-টোন ফ্ল্যাশ, দ্রুততর অটো ফোকাস, ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন ফিচার, থাকছে ১৫০ এমবিপিএস এলটিই সাপোর্ট, তিনগুণ দ্রুত ওয়াইফাই, ওয়াইফাই কলিং ও এনএফসি।

/এইচএএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।