দুপুর ০১:১৪ ; শনিবার ;  ২০ জানুয়ারি, ২০১৮  

রোবটের সঙ্গে যুদ্ধ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

টাইটানফল শুটিং ধাঁচের গেম। গেমটি নির্মাণ করেছে রেসপায়ন এন্টারটেইনমেন্ট। বাজারে এনেছে ইলেক্ট্রনিক আর্টস (ইএ)। টাইটানফল গেমটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজচালিত পিসি, এক্সবক্স ৩৬০ এবং প্লে- স্টেশন-৩ সহ প্রায় সব ধরনের গেমিং ডিভাইসে উপভোগ করা যাবে। এর মূল কাহিনী ভবিষ্যতের কোনও এক সময়। বহু প্রজন্ম ধরেই মানুষ বাস করছে মাটির অতল গভীরে। যেখানে তারা নির্মাণ করে চলেছে কল্পনার এক আধুনিক নগরী। প্রযুক্তির সহায়তায় আবিস্কারের একপর্যায়ে মানুষ নির্মাণ করে নিজস্ব বুদ্ধিবৃত্তিসম্পন্ন রোবট। রোবটগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে নগরীর উন্নয়নে কাজ করতে থাকায় বদলে যেতে শুরু করে মনুষ্য নির্মিত এ নগরীর সমগ্র প্রেক্ষাপট। তবে টাইটান আগের চেয়ে আধুনিক হলেও সেখানে হারিয়ে যেতে থাকে মানুষ। কিছুদিনের মধ্যেই নগরীতে রোবটের আধিপত্য শুরু হয়। তবে ততদিনে অনেক দেরি হয়ে গেছে। সম্পূর্ণ নগরী নিয়ন্ত্রণে একদল রোবট একত্রিত হয়ে গঠন করে সৈন্যদল। অত্যাচারী এমন রোবটের কবল থেকে বাঁচতে তাই মানুষ ধীরে ধীরে টাইটান নগরী ত্যাগ করতে থাকে। Titanfall চমৎকার এ গেমটিতে টাইটান নগরীকে রক্ষায় আধুনিক সৈন্য দলের বিপরীতে লড়তে হবে গেমারকে। এ সময় অত্যন্ত গোপনে গেমারকে সব বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হবে। এ ছাড়াও আধুনিক রোবট সৈন্যদলের সঙ্গে সম্মুখ সমরে অবতীর্ণ হতে হবে গেমারকে। গেমটিতে গেমারের সর্বোচ্চ দক্ষতা যাচাইয়ে থাকছে সেলফ- টাইমার ফিচার। যেখানে নির্দিষ্ট সময়ের মাঝে গেমারকে শত্রুদের সৈন্যদল ধ্বংস করে পেরিয়ে যেতে হবে লেভেল। প্রয়োজনীয় হার্ডওয়্যার: ইন্টেল কোর টু কোয়াড কিউ৯৪৫০ সিরিজের ২.৬৬ গিগাহার্টজ বা এএমডি সিপিইউ ফেনম-২ এক্স-ফোর ৮২০ সিরিজের প্রসেসর, র‌্যাম: ৮ গিগা, ডাইরেক্ট এক্স-১০, গ্রাফিক্স কার্ড: এনভিদিয়া জিফোর্স জিটি এক্স৫৬০ এএমডি জিপিইউ র‌্যাডিওন এইচডি ৬৮৭০ সিরিজের ১ গিগা এবং ফ্রি হার্ডডিস্ক স্পেস: ১১ গিগা। -আনোয়ারুল ইসলাম জামিল /এইচএএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।