রাত ১০:৩৭ ; শনিবার ;  ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯  

জিডি করে সন্তান প্রসবের অনুমতি!

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি॥ নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করার পরই সন্তান প্রসবের অনুমতি মিলেছে এক গর্ভবতীর। সন্তানসম্ভবা ওই নারীর প্রসব ব্যথা ওঠলে তাকে প্রথমে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও পরে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু স্বামী না থাকায় অপারেশন করতে রাজি হয়নি সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকেরা। ওই নারীর স্বামী অন্যত্র বিয়ে করে চলে যাওয়ায় এ বিপত্তির সৃষ্টি হয়। শেষে জিডি করার পরই তার অপারেশন করতে রাজি হয়েছেন চিকিৎসকেরা। শনিবার বিকেলে ফিরোজা বেগম (২২) নামের ওই নারীর মা আজিয়া বেগম বাদী হয়ে জিডিটি করেন। তিনি জানান, ৯ মাসের গর্ভবতী ফিরোজা বেগমের প্রসব ব্যথা ওঠলে শুক্রবার রাতে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু সেখানকার চিকিৎসকেরা স্বামীর অনুমতি ও স্বাক্ষর ছাড়া অপারেশন করতে রাজি হয়নি। এরপর শনিবার ফতুল্লা ও নারায়ণগঞ্জ শহরের কয়েকটি বেসরকারি ক্লিনিকে তাকে নেওয়া হলে সেখানেও কেউ অপারেশন করতে রাজি হয়নি। পরে একটি ক্লিনিকের ডাক্তারের পরামর্শে আজিয়া বেগম থানায় জিডি করেন। জিডির পরেই ডাক্তার অপারেশন করতে রাজি হয়। ফতুল্লা মডেল থানার ডিউটি অফিসার এসআই গোলাম মোস্তফা জিডি দায়েরের সত্যতা স্বীকার করেছেন। আজিয়া বেগম আরও জানান, তার মেয়ে ফিরোজা বেগমের বছর পাঁচেক আগে মুন্সীগঞ্জ সদরের গোপপাড়া এলাকার ইকবালের (২৬) সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় যৌতুক বাবদ ২০ হাজার টাকা নেন ইকবাল। কয়েক মাস আগে আবারও ২০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করেন তিনি। যৌতুক না পেয়ে ৩ মাস আগে অন্যত্র বিয়ে করে সাভারে চলে যান ইকবাল। /এমআর/টিএন

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।