সন্ধ্যা ০৭:১১ ; সোমবার ;  ২০ মে, ২০১৯  

ঈদে চাই নতুন ট্যাব, স্মার্টফোন কিংবা ল্যাপটপ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

হিটলার এ. হালিম॥

শুধু পোশাক নয়,ঈদে চাই নতুন প্রযুক্তিও। তাই প্রযুক্তিরবাজারও রমরমা। বিক্রির শীর্ষে আছে ল্যাপটপ, ট্যাব, ডিজিটাল ক্যামেরা ও স্মার্টফোন। অার ঈদের মধ্য দিয়েই দীর্ঘদিনের ধীরগতির প্রযুক্তিপণ্যের বাজার খানিকটা প্রাণ ফিরে পেয়েছে

বিক্রির শীর্ষ তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে বিনোদনমূলক পণ্য। যার মধ্যে রয়েছে মাল্টিমিডিয়া স্পিকার, পোর্টেবল মিউজিক ডিভাইস (এমপি-ফোর, ফাইভ)

গত দুই-তিন বছর ধরে ঈদের কেনাকাটায় দাপিয়ে বেড়িয়েছে প্রযুক্তিপণ্য। ল্যাপটপ, নোটবুক, স্মার্টফোন বা নিদেনপক্ষে পরিবারের জন্য একটা ডিজিটাল ক্যামেরা হলেও কেনা হচ্ছে ঈদ উপলক্ষে। উপহার হিসেবেও এগুলোর জুড়ি নেই। ভাই বোনকে,মা-বাবা ছেলেমেয়েকে, দম্পতিরা একে অপরকেপোশাকের পাশাপাশি উপহার দিচ্ছেন স্টাইলিশ এসব গ্যাজেটস।

চলতি মাসের ২০ তারিখের পরেই প্রযুক্তি বাজারে বেড়েছে ক্রেতার সমাগম। আর বরাবরের মতো ঈদ নিয়ে নানা ধরনের অফারও এসেছে। প্রতিটি পণ্যেই আছে নগদ ছাড় ও এটা ওটা গিফট।

বিসিএস কম্পিউটার সিটি এলিফ্যান্ট রোডের কম্পিউটার বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ক্রেতারা ল্যাপটপের পাশাপাশি আইপ্যাড, ডিজিটাল ক্যামেরা, মোবাইলফোন, এমপি-থ্রি এমনকি পেনড্রাইভও কিনছেন।

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) মহাসচিব নজরুল ইসলাম মিলন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, "এমনিতেই বেশ কিছুদিন ধরে কম্পিউটার মার্কেট স্লো যাচ্ছে। রোজা শুরু হলে বেচাকেনা একদম কমে যায়। তবে ঈদের অাগে অাগেবিক্রি বাড়তে শুরু করেছে।" তিনি আরওজানান, এখন ডেস্কটপের চেয়ে ল্যাপটপ বেশি বিক্রি হচ্ছে। পাল্লা দিয়ে বিক্রি হচ্ছে মিউজিক্যাল ডিভাইস।

_MG_2902

স্মার্ট টেকনোলজিসের উপ-মহাব্যবস্থাপক মুজাহিদ অাল-বেরুনী সুজন বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ঈদে ল্যাপটপের বিক্রি বেশি হচ্ছে। বিশেষ করে নোটবুক। ২৩-৩৫ হাজারের মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে এগুলো।

এবার অনেকেরই হাতে হাতে দেখা যাচ্ছে ট্যাবলেট পিসি। হালকা, বহনযোগ্য ও স্টাইলিশ হওয়ায় অ্যাপল, এসার, অাসুস, টুইনমস ট্যাব বিক্রির শীর্ষে রয়েছে বলে জানা গেছে।

স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশের মার্কেটিং কমিউনিকেশনস ম্যানেজার তাহাসিনা রাফা বললেন, এ মাসের ২২-২৩ তারিখ থেকে স্যামসাং মোবাইলের বিক্রি বেড়ে গেছে।

তিনি জানান, হাই-এন্ড পণ্যের মধ্যে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস-ফাইভ বেশি বিক্রি হচ্ছে। অন্যদিকে মাঝামাঝি দামের মধ্যে সব‌‌‌চেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে গ্যালাক্সি এস-ডুয়োস টু মডেলের সেট। দাম দাম ১২ হাজার ৫০০ টাকা। তবে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে অাছে গ্যালাক্সি গ্র্যান্ড টু। এ ছাড়া ট্যাবের মধ্যে বিক্রিতে এগিয়ে অাছে ৭ ইঞ্চির গ্যালাক্সি ট্যাব-থ্রি নিও।

_MG_2917

এদিকে নকিয়া, স্যামসাং, এলজি, সিম্ফনি, মাইক্রোম্যাক্স ব্র্যান্ডের হ্যান্ডসেটচাহিদার শীর্ষে রয়েছে। দেশি ব্র্যান্ডের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে ওয়ালটন। তুলনামূলকভাবে কম দাম এবং দেখতে অাকর্ষণীয় হওয়ায় ক্রেতারা ওয়ালটনের দিকে ঝুঁকছেন বলে জানা গেল বাজার ঘুরে। এর পরই আছে সিম্ফনি।

বাজারে ক্যানন, সনি, স্যামসাং, নাইকন ব্র্যান্ডের ডিজিটাল ক্যামেরা দেদার বিক্রি হচ্ছে। দেশে ক্যানন ক্যামেরার পরিবেশক জেএএন অ্যাসোসিয়েটসের জ্যেষ্ঠ মহাব্যবস্থাপক কবীর হোসেন জানান, ‘ক্রেতারা ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা দামের মধ্যে ক্যানন ক্যামেরার খোঁজ খবর করছেন। এসএলঅার ক্যামেরার মধ্যে ৩০-৪০ হাজার টাকা দামেরগুলোই বেশি চলছে। ঈদ উপলক্ষে ক্রেতারা প্রতিটি পণ্য ক্রয়ে পাচ্ছেন ক্যামেরা সংশ্লিষ্ট উপহার সামগ্রী। অন্যদিকে ৭ হাজার টাকা দামের অল-ইন-ওয়ান প্রিন্টার (-৪০০) বেশি বিক্রি হচ্ছে বলে তিনি জানান।

অন্যদিকে, কমদামের চাইনিজ মোবাইলফোন সেট এবং নামিদামী ব্র্যান্ডের নকল মোবাইল সেটগুলো নিম্নবিত্ত ক্রেতাদের বেশি পছন্দ। দেড় থেকে সাড়ে তিন হাজার টাকার সেটে আছে বেশি মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা, উচ্চ ধারণক্ষমতার মেমোরি কার্ড, ভিডিও ও রেডিও শোনার সুযোগ। এ ছাড়াও এমপি থ্রি, ফোর, ফাইভ ফরম্যাটে গান শোনা বা মুভি দেখার প্রযুক্তিসম্পন্ন সেটগুলো নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্তের বেশি পছন্দ।

ছবি : সাজ্জাদ হোসেন

এইচএএইচ/এফএ

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।