রাত ১১:২২ ; বুধবার ;  ১৭ অক্টোবর, ২০১৮  

গেম রিভিউ: স্পেস হাল্ক

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

এটি একটি স্ট্র্যাটেজি গেম। ঘটনার শুরু ওয়ারহ্যামার আর হাল্কের সঙ্গে বিভিন্ন গ্রহের এলিয়েনদের যুদ্ধের মধ্য দিয়ে।

প্রথমদিকে বাড অ্যাঞ্জেলদের মাথাটা একটু মোটা। তাদের প্রথমদিকের সেনাবাহিনীর সদস্যদের আকার যেমন মোটাসোটা তেমনি ব্যাটল ট্যাকটিকহীন। তাই সব ধরনের গরম ঝেড়ে ফেলতে কোনও সমস্য হয় না। ধীরে ধীরে বাড়তে থাকবে ধুন্ধুমার অ্যাকশন প্যাক্ড গেমিং। আর এতেই শুরু হয় মজার মজার সব ব্যাপার স্যাপার।

প্রথমদিকের বাড অ্যাঞ্জেলরা এতই বিশালাকার যে তাদের কেউ কাউকে পেরিয়ে গুলি ছুঁড়তে পারে না। তাই সহজেই শত্রু সেনাদের এক এক করে শেষ করে ফেলা যায়। তবে বাড অ্যাঞ্জেলদের বড় সমস্যা হচ্ছে তাদের প্রচণ্ড শক্তিশালী ফায়ার পাওয়ার। তাই কিছুটা হলেও সাবধানতা বজায় রাখতে হবে।

স্পেস মেরিন ও জিন্সটিলারদের আক্রমণ পদ্ধতি আর টার্ন স্ট্র্যাটেজি একটু কষ্ট করে একবার বের করে ফেলতে পারলেই গেমিং অনেকখানি সহজ এবং আনন্দময় হয়ে উঠবে।

সরু প্যাসেজগুলো ভর্তি থাকবে নানা ধরনের ফাঁদ আর বুরি ট্র্যাপ দিয়ে। ভালো হয় শত্রু পক্ষের এগিয়ে আসার জন্য অপেক্ষা করলে। মোটাগুলো একবার প্যাসেজ ধরে ঢুকে পড়লেই আর কিছু নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। এরপরের গেমিং একটু কঠিনই হয়ে যাবে, কারণ মিস্টার জিন্সটিলাদের ব্যাটল ট্যাকটিক দিনে দিনে পাজল সলভিংয়ের কাছাকাছি চলে যাবে। যখন ধীরে ধীরে গেমের প্রতিটি ট্যাকটিক গেমারের আয়ত্ত্বে চলে অাসবে তখন বেশি কিছু করার থাকবে না। কারণ একটু হিসাব করলে দেখা যাবে গেমটি খেলার মাত্র দুটি পথ আছে- একটি সঠিক, অপরটি ভুল পথ।

সুপার হিরো নিয়ে টার্নভিত্তিক স্ট্র্যাটেজি গেমগুলোর মধ্যে এটিই খ্যাতি পেয়েছে। সব মিলিয়ে অসাধারণ একটি গেম।

পিসি কনফিগারেশন: অপারেটিং সিস্টেম- উইন্ডোজ এক্সপি/ভিসতা/সেভেন, প্রসেসর: কোর টু ডুয়ো/ এএমডি অ্যাথলন, র‌্যাম: ২ গিগা উইন্ডোজ এক্সপি/৪ গিগা উইন্ডোজ ভিসতা/, গ্রাফিক্স কার্ড: ২৫৬ মেগা, ফ্রি হার্ডডিস্ক স্পেস: ১ গিগা।

- আনোয়ারুল ইসলাম জামিল

এইচএএইচ/Hulk

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।