সকাল ০৯:১০ ; রবিবার ;  ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৯  

সাত খুন: জাহাঙ্গীরের নবজাতক রোজার পাশে লেডিস ক্লাব

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি।। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামের সঙ্গে নির্মমভাবে খুন হওয়া গাড়ি চালক জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী সামছুন্নাহার নুপুরের পাশে দাঁড়িয়েছে নারায়ণগঞ্জ লেডিস ক্লাব। শনিবার দুপুর ১টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান মিঞার সহধর্মিনী নারায়ণগঞ্জ লেডিসক্লাবের সভানেত্রী শামীমা আরাসহ প্রশাসনের অন্য কর্মকর্তাদের স্ত্রীরা সামছুন্নাহারকে দেখতে নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে যান। এসময় তিনি সামছুন্নাহারের নবজাতক কন্যা রোজাকে কোলে নিয়ে আদর করেন। রোজার জন্য তৈরি পোশাক ও প্রসূতি সামছুন্নাহারের জন্য ফলমূলসহ লেডিসক্লাবের পক্ষ থেকে তার হাতে নগদ টাকা তুলে দেন। জেলা প্রশাসকের সহধর্মিনী শামীমা আরা বলেন, 'সামছুন্নাহারের বিপদের সময় আমরা এগিয়ে এসেছি। লেডিস ক্লাব ভবিষ্যতেও সামছুন্নাহারের পাশে থাকবে।' এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) মাহমুদুর রহমান হাবিবের সহধর্মিনী ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) সিদ্দিকুর রহমানের সহধর্মিনী, এনডিসি আবুল কাশেম মোহাম্মদ শাহীন। গত শুক্রবার দুপুর সোয়া ২ টার দিকে নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে কন্যাসন্তান প্রসব করেন নিহত জাহাঙ্গীরের স্ত্রী সামছুন্নাহার নূপূর। খবর পেয়ে নবজাতককে দেখতে হাসপাতাল যান নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী। রোজার দিনে জন্ম নেওয়া শিশুটির নাম রাখেন ‘রোজা’। প্রসঙ্গত গত ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-২ নজরুল ইসলাম, তার বন্ধু মনিরুজ্জামান স্বপন, তাজুল ইসলাম, লিটন, নজরুলের গাড়িচালক জাহাঙ্গীর আলম, আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার এবং তার ব্যক্তিগত গাড়িচালক ইব্রাহিমকে অপহরণের পর হত্যা করে লাশ শীতলক্ষ্যায় ফেলে দেওয়া হয়। এরপর ৩০ এপ্রিল ও ১ মে উদ্ধার হয় লাশগুলো। ঘটনার মূল আসামি নূর হোসেনকে গত ১৫ জুন ভারতের কলকাতা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এছাড়া গ্রেফতার হওয়া চাকরিচ্যুত র‌্যাব কর্মকর্তা অবসরে পাঠানো সেনাবাহিনীর লে. কর্নেল তারেক সাঈদ, মেজর আরিফ হোসেন ও লে. কমান্ডার এম এম রানা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন। তাতে তারা স্বীকার করে যে নূর হোসেনের পরিকল্পনায় সাত খুনের ঘটনা ঘটে। একে/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।