বিকাল ০৫:৪৯ ; শনিবার ;  ২১ জুলাই, ২০১৮  

অ্যাকশনধর্মী গেম শ্যাডো

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

অ্যাকশনধর্মী গেম শ্যাডোতে গেমার গ্যাব্রিয়েল বেলমন্ট, ব্রাদারহুড অব লাইটের এক দুঃসাহসী যোদ্ধা। বেলমন্টের প্রিয়তমা স্ত্রী ম্যারি ল্যান্ড সারাদেশে ছড়িয়ে পড়া অন্ধকার শক্তির আঘাতে মারা যায়। এরপর শোকাহত বেলমন্ট বেরিয়ে পড়ে অন্ধকারের এই ভয়ঙ্কর রাজত্বের তিনজন শ্যাডো লর্ডকে হত্যা করে দেশে শান্তি ফিরিয়ে আনতে।

গোপন আরেকটি মিশন চালিয়ে যেতে হবে বেলমন্টকে। সেটা হলো ম্যারিকে জীবনে ফিরিয়ে আনার। তাকে জীবনে ফিরিয়ে আনতে বেলমন্টকে তৈরি করতে হবে ‘গড মাস্ক’, যা তৈরি করতে ব্যবহার করতে হবে শ্যাডো লর্ডদের জীবনের অপভ্রংশ। গ্যাব্রিয়েলকে শুরু করতে হবে এমন এক যাত্রা, যা থেকে সে কোনোদিন জীবিত ফিরতে পারবে কিনা কেউ জানে না।

গেমারকে পার হয়ে যেতে হবে ভঙ্কর জঙ্গল, বিশাল এবড়ো খেবড়ো পর্বতমালা, জটিল সব গোলকধাঁধা, পুরনো অট্টালিকা, পারদ ভর্তি গুহা, মৃত মানুষের দেশ ও ভয়াবহ আগ্নেয়গিরি। যুদ্ধ করতে হবে ভয়ঙ্কর সব দানব, ড্রাকুলা, কীটপতঙ্গ, কঙ্কাল প্রভৃতির সঙ্গে।

বেলমন্টের পুরো যাত্রা পথই বিপদ-অাপদ আর আকস্মিকতায় ভরা। বিশেষ করে যারা গড অব ওয়ার সিরিজের গেমগুলো খেলে অভ্যস্ত, তারা ক্যাসলভেনিয়ার মধ্যে তাদের গেমিং আমেজ খুঁজে পাবেন। এর মধ্যে বেলমন্টকে বিভিন্ন ধরনের ধাঁধা সমাধান করতে হবে। আর শ্যাডো অব দ্য কলসাসের অন্ধ ভক্তরাও এখানে খুঁজে পাবেন তাদের পছন্দসই বিশালকৃতির টাইটানদের সঙ্গে যুদ্ধ ও পাশাপাশি যুদ্ধ পরিচালনার দায়িত্ব।

খুঁজে ফিরতে হবে বহুদিন আগে হারিয়ে যাওয়া গুপ্তধন। গেমার ব্যবহার করতে পারবেন বিভিন্নভাবে অর্জন করা জাদুমন্ত্র আর অদ্ভূত ক্ষমতাসম্পন্ন সব অস্ত্র। আর ক্যাসলভেনিয়া সিরিজের আর সব গেমের মতোই এটিতেও আছে ধারাবর্ণনা।

সিরিজের সবচেয়ে বড় মাধুর্য লুকিয়ে আছে গেমগুলোর সাউন্ড ট্র্যাকে। প্রতিটি সুর যেন বিশেষ করে ওই ধরনের পরিস্থির জন্যই সৃষ্টি করা হয়েছে। আর প্রত্যেক শ্যাডো লর্ডেরই আছে দারুন সব ক্ষমতা, যা গেমারারের ক্ষমতাকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ করবে। প্রতিটি যুদ্ধে থাকবে অসাধারণ থ্রিডি শো, যা গেমারকে মুগ্ধ করবে।

যা যা লাগবে:

অপারেটিং সিস্টেম- উইন্ডোজ এক্সপি/ভিসতা/সেভেন, প্রসেসর: কোর টু ডুয়ো/এএমডি অ্যাথলন, র‌্যাম: ১ গিগা উইন্ডোজ এক্সপি/ ২ গিগা উইন্ডোজ ভিসতা/, গ্রাফিক্স কার্ড: ৫১২ মেগা, ফ্রি হার্ডডিস্ক: ১২ গিগা ।

- আনোয়ারুল ইসলাম জামিল

এইচএএইচ

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।