রাত ০৮:১৩ ; শনিবার ;  ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯  

''আইন ছাড়া গৃহশ্রমিকদের অধিকার রক্ষা করা যাবে না''

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥

আইন ছাড়া গৃহ-শ্রমিকদের অধিকার রক্ষা করা যাবে না। তাই আমাদের আগে আইনের বাস্তবায়নের দিকে নজর দিতে হবে। এ কথা বললেন জাতীয় গার্হস্থ্য নারী শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেষ্টা আবুল হোসেন।

সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) গোলটেবিল কক্ষে নারী গৃহকর্মী উন্নয়ন প্রকল্প ও নারী মৈত্রী আয়োজিত “আন্তর্জাতিক গৃহশ্রমিক দিবস-২০১৪” উপলক্ষে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব মন্তব্য করেন।

সভায় নারী মৈত্রীর অর্জন সমূহ নিয়ে একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন রাফিকা খান।

তিনি আরও বলেন, “গৃহশ্রমিকদের জন্য আমরা একটি মজুরি-কাঠামো নির্ধারণ করতে চাচ্ছি। এতে করে ন্যূনতম বেতনটি তারা পাবে।”

উপদেষ্টা আবুল হোসেন বলেন, “সরকার কী ভাবলো তা বিষয় নয়। গৃহশ্রমিকদের অধিকার রক্ষায় কী পরিমাণ মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছে সেটাই দেখার বিষয়।”

জাতীয় শ্রমিক জোটের সভাপতি ও সংসদ সদস্য শিরীন আক্তার বলেন, ''যেই সমস্ত গৃহ শ্রমিক আমাদের কে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সাহায্য করে তাদেরকে বাঁচাতে ও সুস্থ রাখতে হবে আমাদেরই স্বার্থে।''

গৃহশ্রমিকদের আইন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “বর্তমানে আইএলও গৃহশ্রমিকদের জন্য যে আইনটি করেছে তা মাত্র ১৪টি দেশ গ্রহণ করেছে। আইএলও'র আইনটি যেন কার্যকর আইন হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।”

শিরীন আক্তার আরও বলেন, “আমাদের সরকার দ্রুত গৃহশ্রমিক নীতিমালা আইন বাস্তবায়ন করবে। আর এ জন্য শ্রমমন্ত্রী কাজ করে যাচ্ছেন।”

নারী মৈত্রীর নির্বাহী পরিচালক শাহীন আক্তার ডলির সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের প্রোগ্রাম ম্যানেজার সারোয়াত বিনতে ইসলাম, নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ সুলতান উদ্দিন আহমদ, নাগরিক উদ্যোগের নির্বাহী পরিচালক জাকির হোসেন, জাতীয় গার্হস্থ্য নারী শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মুর্শিদা আক্তার, গৃহশ্রমিক জোসনা বেগম, গৃহ শ্রমিক জামেলা বেগম প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় গৃহশ্রমিক জোসনা বেগম, জামেলা বেগম ও মরিয়ম বেগমকে সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

এসআইএস/এফএ

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।