রাত ১১:১৪ ; শনিবার ;  ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯  

‌'সূর্যের হাসি' কার্যক্রমে এবার যুক্ত হল ডিএফআইডি

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর দোড়গোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক দাতা সংস্থা ইউএসএআইডি'র অর্থায়নে পরিচালিত ‌'সূর্যের হাসি' কার্যক্রমে এবার যুক্ত হল যুক্তরাজ্যের আরেক দাতা সংস্থা ডিএফআইডি। এই প্রকল্পে ডিএফআইডি অতিরিক্ত ২৯ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে। দি ইউনাইটেড স্টেটস এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ইউএসএআইডি) এবং ইউনাইটেড কিংডম’স ডিপার্টমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ডিএফআইডি)-র এই নতুন পার্টনারশিপের ফলে সূর্যের হাসি ক্লিনিকসমূহ আরো লাখ লাখ মানুষের কাছে মৌলিক স্বাস্থ্যসেবা, বিশেষ করে শহর এলাকার নারী ও শিশুদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে সামর্থ্য অর্জন করবে। বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতায় ইউএসএআইডি'র এনজিও হেলথ সার্ভিস ডেলিভারি প্রজেক্টটি 'সূর্যের হাসি' নামে বাস্তবায়িত হচ্ছে। এতে দাতা সংস্থাটি ৫৪ মিলিয়ন ডলার তহবিল দান করেছে। এর সঙ্গে ডিএফআইডি'র আরো ২৯ মিলিয়ন ডলার যোগ হল। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব এম. এম. নিয়াজউদ্দিন, ইউএসএআইডি মিশন ডাইরেক্টর জানিনা জারুজেলস্কি এবং ডিএফআইডি বাংলাদেশের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ সারাহ কুক ঢাকায় আনুষ্ঠানিকভাবে এই পার্টনারশিপ ঘোষণা করেন। সূর্যের হাসি ক্লিনিকের সাবেক ব্রান্ড এ্যাম্বাসেডর জয়া আহসান দরিদ্রদের অধিকতর স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকে সমর্থন করতে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। “ইউএসএআইডি এবং ডিএফআইডি-র যৌথ শক্তি বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে হাতে হাত রেখে কাজ করার ফলে সূর্যের হাসি ক্লিনিক কার্যক্রম নতুন মাত্রায় পৌঁছাবে। লাখ লাখ নারী ও শিশু, যাদের জরুরিভিত্তিতে স্বাস্থ্যসেবার প্রয়োজন রয়েছে, তাদের উপকারে আসবে”-- বলেন জারুজেলস্কি। সারাহ কুক বলেন, “দরিদ্র নারী ও শিশুদের স্বাস্থ্য-উন্নয়ন ইউকে সরকারের অগ্রাধিকার। আমাদের শহর স্বাস্থ্য কর্মসূচির মাধ্যমে দরিদ্র মায়েদের দক্ষ সেবায় নিরাপদ প্রসব, মা ও শিশুদের ভালভাবে বেঁচে থাকার সুযোগ সৃষ্টি এবং অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুরোধে ইউকেএইড-এর সহায়তা অব্যহত থাকবে।” এই পার্টনারশিপ ডিএফআইডির বৃহত্তর শহর স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচির একটি অংশ যা গুণগত প্রাথমিক সেবা বিশেষত শহর এলাকার দরিদ্র মা ও নবজাতকের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেবার সুবিধা বৃদ্ধিতে ইউকে সরকারের সহায়তা অব্যাহত থাকবে। এই পার্টনারশিপে ইউএসএআইডি ও মেরীস্টোপস ক্লিনিক সোসাইটি বাংলাদেশ অন্তর্ভুক্ত হবে এবং ব্র্যাক শহর স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে ঐকান্তিকভাবে সহযোগিতা করবে। ১৯৭১ সাল থেকে ইউএসএআইডির মাধ্যমে ইউএস সরকার বাংলাদেশে ৬ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি উন্নয়ন-সাহায্য প্রদান করেছে। বাংলাদেশের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে ২০১৩ সালে ইউএসএআইডি প্রায় ২০০ মিলিয়ন ডলার প্রদান করেছে। জেএ/টিএন

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।