দুপুর ০২:৫৬ ; রবিবার ;  ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮  

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে ডিজিটাল রিকশা ও নৌকা

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

নিজস্ব প্রতিবেদক

সফটওয়্যার, অ্যাপ্লিকেশনসহ প্রযুক্তির নানা উদ্ভাবনী প্রদর্শনীর পাশাপাশি ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে এবার অালোচনার শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে সোলার সিস্টেমে চালিত রিকশা অার নৌকা। এটি দুটি অাইটেমকে দর্শকরা এরই মধ্যে নাম দিয়ে ফেলেছে ডিজিটাল বাহন হিসেবে। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অান্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চলমান ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড প্রদর্শনীতে ঢোকার প্রবেশ মুখে হাতের বামে পড়বে এই দুটি বাহন।

সোলার সিস্টেমে চালিত নৌকাটির ছাউনির ওপরে বসানো হয়েছে সোলার প্যানেল। এটি ৬ ঘণ্টা চার্জ দিলে ১২ ঘণ্টা চলবে। এর উদ্ভাবক ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর এনার্জি রিসার্চ বিভাগ। যদিও উদ্ভাবকরা এই নৌকার নাম দিয়েছেন সোলার ফেরি বোট। সাধারণ নৌকার মতোই এতে যাত্রী পারাপার এবং পণ্য পরিবহন করা যাবে। পরিবেশবান্ধব এই নৌকায় একসঙ্গে ১৩ জন চড়ে বসে যাবে।

অন্যদিকে নৌকার পাশেই রাখা ডিজিটাইলজড রিকশা। এই রিকশার ছাউনির ওপরে বসানো হয়েছে সোলার প্যানেল। দেখতে অনেকটা ব্যাটারিচালিত রিকশা মতোই । তফাৎ এই যে, ব্যাটারি চালিত রিকশার ব্যাটারি চার্জ হয় বিদ্যুৎ থেকে অার সোলার সিস্টেমের রিকশার ব্যাটারি চার্জ হয় সোলার প্যানেল থেকে।

একবার পূর্ণ চার্জ হলে ব্যাটারি চালিত রিকশা থেকে এটি ৩ ঘণ্টা বেশি চলতে সক্ষম। বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী সোলার রিকশার উদ্ভাবক ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর এনার্জি রিসার্চ বিভাগ সূত্রে জানা গেল রিকশাটির দাম পড়বে ৫৫ হাজার টাকা। তবে বাণিজ্যিক উৎপাদনে গেলে দাম অারও কমে অাসবে।

প্রদর্শনী আর প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হওয়ার আন্তর্জাতিক আয়োজনে প্রচুর সংখ্যক দর্শনার্থীর উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে সেমিনার আর কর্মশালাগুলোতে। পছন্দের চাকরি পেতে বিশ্ববিদ্যলয়গামী শিক্ষার্থী এমনকি অনেক কর্মজীবীকে দেখা গেছে আইটি জব ফেয়ারে সিভি জমা দিতে।

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে রিভ সিস্টেম রিভ চ্যাট নামের এREVEকটি চ্যাটিং সফওয়্যার অবমুক্ত করেছে। এটি দিয়ে সংশ্লিষ্ট সাইটে লগইন করা কোনও ভিজিটরের সঙ্গে সরাসরি কথা বলা (লাইভ চ্যাট) যাবে।

অন্যদিকে এরিনাফোন প্রদর্শন করছে অনলাইনে স্কুল ম্যানেজমেন্ট সিসেটম সফটওয়্যার। এছাড়া প্রতিষ্ঠানটির সহযোগী প্রতিষ্ঠান অ্যাড সিক্সটিফাইভ (গুগল অ্যাডসেন্সের সার্টিফায়েড এজেন্সি) ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছে।

শুক্রবার ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে ৫টি কারিগরি কর্মশালা এবং ৬টি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সকালে উইন্ডি টাউনে নেদারল্যান্ডস ট্রাস্ট ফান্ড থ্রি এর বাংলাদেশি প্রকল্প উদ্বোধনের পাশাপাশি তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবায় বাংলাদেশে ভূমিকা বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দেশের তথ্যপ্রযুক্তি ও সেবাখাতে নেদারল্যান্ডস সরকার ১৫ কোটি ২০ লাখ টাকা দিচ্ছে। Arena

নির্বাচিত ৪০টি প্রতিষ্ঠানকে এ অর্থ দেওয়া হবে। এ অর্থ দিয়ে মোবাইল অ্যাপ, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ডাটা এবং গ্রাফিকস খাতের উন্নয়ন করা হবে। বিকেলে একটি সেমিনারে নাগরিক উদ্ভাবনী সেবা প্রকল্প অনুদান প্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করে একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই)

অনুদান প্রাপ্ত ১০টি উদ্যোগের মধ্যে এক কোটি ৭৫ লাখ ৭ হাজার ১৬ টাকা অনুদান দেওয়া হয়।

শনিবার ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের শেষ দিনে সকাল ১১টায় চিলড্রেন’স ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড অনুষ্ঠিত হবে। এতে বিশিষ্ট লেখক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল শিশুদের সঙ্গে তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে আড্ডা দেবেন। এছাড়া সামাজিক মাধ্যম, -কমার্সসহ বিভিন্ন বিষয়ে ৭টি সেমিনার ও ৪টি টেকনিক্যাল সেশন অনুষ্ঠিত হবে। শেষ দিনও সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রদর্শনী চলবে।

ছবি: সাজ্জাদ হোসেন ও সংগ্রহ

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।