রাত ০৫:৫২ ; সোমবার ;  ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮  

দুই বছর পর ৫ নারী-শিশুকে ফেরত দিলো ভারত

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বেনাপোল  প্রতিনিধি।।

দুই বছর কারাভোগের পর পাচারের শিকার ৫ বাংলাদেশি নারী-শিশুকে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতীয় পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে তাদের বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ফেরত আসা নারী-শিশুরা হলেন, খুলনার শারমিন আক্তার (২৩), কলারোয়ার রেহেনা খাতুন (২৫), রুমা খাতুন (২০), সাতক্ষীরার সাজিদা বেগম (২৭) ও সঙ্গে তার সাত মাস বয়সী মেয়ে মোহেনী।

পুলিশ জানায়, দুই বছর আগে পাচারকারীরা এসব নারীদের ভালো চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে যশোরের বেনাপোল সীমান্ত পথে ভারতে পাচার করে। পরে তাদের ভালো কাজ না দিয়ে কলকাতার একটি বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে। পুলিশ খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করে আদালতে পাঠায়। সেখানে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে তাদের কারাদণ্ড হয়। অবশেষে সাঁজার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর সেখান থেকে কলকাতা জাবালা সেল্টার হোম নামে একটি এনজিও সংস্থা তাদের ছাড়িয়ে নিজেদের আশ্রয়ে রাখে। পরে বাংলাদেশের মানবাধিকার সংস্থা রাইটস যশোরের উদ্যোগে উভয় দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপে ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে তাদের দেশে ফেরত আনা হয়।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)তরিকুল ইসলাম জানান,ফেরত আসা ওই নারীদের বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। সেখান থেকে যশোর রাইটস নামে একটি এনজিও সংস্থা তাদের গ্রহণ করে নিজ নিজ অভিভাবকদের কাছে পৌঁছে দেবে।

ফেরত আসা ওই নারীরা যদি পাচারকারীদের চিহ্নিত করে মামলা করতে চায় তাহলে তাদের আইনি সহায়তা দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন ওসি তরিকুল।

/এসএম/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।