সন্ধ্যা ০৬:১৪ ; রবিবার ;  ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬  

‘বিপিওর পরবর্তী গন্তব্য হবে বাংলাদেশ’

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

টেক রিপোর্ট।।

বিশ্বের বিপিও (বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং) কাজের পরবর্তী গন্তব্য হবে বাংলাদেশ। বিপিও সামিট-২০১৫ পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। গত ৯-১০ ডিসেম্বর আইসিটি বিভাগ ও বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্য) উদ্যোগে দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয় বিপিও সামিট-২০১৫। সামিটের বিভিন্ন কার্যক্রম সবার সামনে তুলে ধরতে আইসিটি বিভাগের সম্মেলন কক্ষে বুধবার এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং বা বিপিও বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও সম্ভাবনাময় একটি খাত। বাংলাদেশের বিপিও ব্যবসার প্রবৃদ্ধি বছরে শতকরা ১০০ ভাগের বেশি, যার বর্তমান বাজারমমূল্য ১৩০ মিলিয়ন ডলার। আমাদের লক্ষ্য এই খাতে ১ বিলিয়ন ডলার আয়। তিনি উল্লেখ করেন, বর্তমানে বাংলাদেশে ২৫ হাজার তরুণ এই সেক্টরে যুক্ত আছে, আমরা এই সংখ্যা শিগগিরই ১ লাখ দেখতে পাব বলে আশা করছি। সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, বাক্যর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ওয়াহিদ শরীফ, মহাসচিব তৌহিদ হোসেন-সহ আরও অনেকে।

বাক্য মহাসচিব তৌহিদ হোসেন বলেন, এই সামিটের মাধ্যমে আমরা দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এই সেক্টরে বাংলাদেশের অবস্থান সম্পর্কে ভালো একটি ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করেছি, আমাদের সক্ষমতার জায়গাগুলো দেখানোর চেষ্টা করেছি। বাংলাদেশে বিপিও সেক্টরের সাফল্যের গল্পগুলো মানুষকে জানানোর চেষ্টা করেছি।

তিনি জানান, ১০টি দেশের প্রতিনিধিরা সরাসরি সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন এবং ৬০টি দেশ থেকে আগ্রহীরা অনলাইনে সম্মেলন সংক্রান্ত খোঁজ খবর নিয়েছেন। ২ দিনে ১০ হাজারের বেশি দর্শনার্থী সরাসরি সম্মেলন পরিদর্শন করেছেন।

ওয়াহিদ শরীফ বলেন, তরুণ প্রজন্মকে উৎসাহিত করতে সম্মেলনের আগেই ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাক্টিভিশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছে। যেখান থেকে প্রায় ১৫ হাজার বায়োডাটা সংগ্রহ করা হয়েছে এবং সামিট চলাকালে ২৩৫ জনকে সরাসরি চাকরিতে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ভারত, শ্রীলঙ্কা ও ফিলিপাইন বিপিও সেক্টরে সবচেয়ে ভালো করেছে। বিপিও সেক্টরে বিশ্বের ৫০০ বিলিয়ান ডলারের মধ্যে ভারত ৮০ বিলিয়ন, ফিলিপাইন ১৬ বিলিয়ন এবং শ্রীলঙ্কা ২ বিলিয়ন ডলার আয় করছে। বর্তমানে বাংলাদেশও দিন দিন এই খাতে এগিয়ে যাচ্ছে।

/এইচএএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।