দুপুর ০২:২৪ ; বৃহস্পতিবার ;  ২৭ জুন, ২০১৯  

বাংলাদেশি ব্লগারদের আশ্রয় দিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

জঙ্গিদের হুমকিতে থাকা বাংলাদেশি লেখক ও ব্লগারদের জরুরিভিত্তিতে আশ্রয় দেওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে পেন আমেরিকান সেন্টারের নেতৃত্বে আটটি মানবাধিকার সংস্থার একটি জোট। এরইমধ্যে এই জোট মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির কাছে একটি আনুষ্ঠানিক চিঠিও পাঠিয়েছে। 

চিঠিতে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, রিপোর্টাস উইদাউট বর্ডারস এবং ফ্রিডম হাউজের মতো মানবাধিকার সংগঠনও রয়েছে। পেন আমেরিকান বাক স্বাধীনতা ও সাহিত্যের উন্নয়ন নিয়ে কাজ করে।  

চিঠির বিষয়ে প্রতিবেদনে বার্তা সংস্থা এপি জানাচ্ছে, ‘বাংলাদেশের লেখক, ব্লগাররা অব্যাহত হুমকির মধ্যে রয়েছে। এ বছরই পাঁচজন নিহত হয়েছে এবং আরও অনেকে হুমকির মধ্যে রয়েছেন। বাংলাদেশ সরকার তাদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দিচ্ছে না। উল্টো পুলিশ তাদের দেশ ছাড়ার পরামর্শ দিয়েছে।’ 

এই চিঠিতে বাংলাদেশের পরিস্থিতিকে ‘সত্যিকার অর্থেই ভয়াবহ’ বলে বর্ণনা করা হয়েছে। লেখক এবং ব্লগারদের বাঁচাতে ‘হিউম্যানিটারিয়ান প্যারোল’ দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন আইন অনুযায়ী, কোনও জরুরি পরিস্থিতিতে অন্য কোনও দেশ থেকে কাউকে সাময়িকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে এসে আশ্রয় দেওয়াকে ‘হিউম্যানিটারিয়ান প্যারোল’ বলে বর্ণনা করা হয়।

পেন আমেরিকান সেন্টারের মত প্রকাশের স্বাধীনতা প্রকল্পের প্রধান কারিন কার্লেকার বলেন, ‘অনেক ব্লগার ও লেখক প্রাণভয়ে লুকিয়ে বেড়াচ্ছেন। তাদের নিরাপত্তা দিতে বাংলাদেশ সরকার অক্ষম কিংবা অনিচ্ছুক।’ 

পেন আমেরিকান সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক সুজানা নোজেল বলেন, ‘লেখকরা আতঙ্কের মধ্যে আছেন। তাদেরকে বিশেষ ব্যবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রে স্থানান্তরের উদ্যোগ নেওয়া দরকার।’ 

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশি লেখক, ব্লগার মোস্তফা কামাল বলেন,‘লেখকরা বরবরই হুমকির মধ্যে বাস করেন। কিন্তু সংকটকালীন সময়ে তারা যদি দেশ ত্যাগ করেন, তাহলে জাতিকে দিক নির্দেশনা দেবে কে? তাদের জীবন হুমকি রয়েছে এটা সত্য। কিন্তু আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, আপদকালীন সময়ে লেখকদের নিজ দেশত্যাগ করা উচিত নয়।’ 

এ বিষয়ে বাংলাদেশের আরও কয়েকজন ব্লগারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি। 

/এইআর/এসএম/এফএস/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।