রাত ১০:২৬ ; মঙ্গলবার ;  ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭  

প্রতিযোগিতায় টিকতে পূর্ণাঙ্গ টেস্টিং ল্যাবরেটরি প্রয়োজন

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

গত ২০১৪ সালে তৈরি পোশাক শিল্পের মোড়কখাত (প্যাকেজিং) থেকে পণ্য রফতানির মাধ্যমে প্রায় ৫ দশমিক ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় হয়েছে। সরকারের নীতিগত সহায়তা পেলে ২০১৮ সালের মধ্যে ১২ বিলিয়ন ও ২০২৫ সালের মধ্যে ১৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্জিত হবে।

তাই বিশ্ববাজারে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে একটা পূর্ণাঙ্গ ইনস্টিটিউট ও পরীক্ষার (টেস্টিং ল্যাবরেটরি) স্থাপন করা প্রয়োজন বলে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুকে জানিয়েছেন বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টাস অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএপিএমই) নেতৃবৃন্দ।

বিজিএপিএমই’র সভাপতি রাফেজ আলম চৌধুরী ও সহ-সভাপতি আবদুল কাদের খানের নেতৃত্বে রবিবার শিল্প মন্ত্রণালয়ে বিজিএপিএমই একটি প্রতিনিধিদল শিল্পমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে এ প্রয়োজনের কথা জানান।

বৈঠকে তৈরি পোশাক খাতের প্যাকেজিংয়ের মানোন্নয়নে টেস্ট ল্যাবরেটরি নির্মাণ করা হবে বলে বিজিএপিএমই নেতৃবৃন্দকে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

আমির হোসেন আমু বলেন, বিজিএপিএমই নেতারা টেস্ট ল্যাবরেটরি নির্মাণের জন্য জমি চেয়েছে। আমরা তা বিবেচনা করছি। প্রাথমিকভাবে  এক বিঘা জমি দেব বলে তাদের জানিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, টঙ্গী, কোণাবাড়ীসহ ঢাকার আশপাশে বিসিক শিল্প নগরী থেকে তাদের জমি বরাদ্দ দেওয়া হবে। টেস্ট ল্যাবরেটরি নির্মাণ করতে পারলে আগামীতে এ খাত বিশ্ব বাজারের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে সম্মত হবে।

/এসআই/এফএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।