রাত ০৫:২৫ ; রবিবার ;  ১৮ নভেম্বর, ২০১৮  

বড়দিনে হ‌ুমায়ূন আহমেদের ‘কে কথা কয়’

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বিনোদন প্রতিবেদক।।

কিংবদন্তি কথাসাহিত্যিক হ‌ুমায়ূন আহমেদের ‘কে কথা কয়’ উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি হয়েছে মঞ্চ নাটক ‘নদ্দিউ নতিম’। ২৫ ডিসেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিটে বড়দিন উপলক্ষে শিল্পকলার মঞ্চে থাকছে নাটকটি। ম্যাড থেটারের প্রথম প্রযোজনা এটি।

নাটকটির দৈর্ঘ্য দু’ঘণ্টা। চলমান সময়ে প্রায় সব মঞ্চ নাটকের গড় ব্যাপ্তি প্রায় দেড় ঘন্টা। সেখানে ‘নদ্দিউ নতিম’ দৈর্ঘে্যর বিচারে খানিক ব্যতিক্রম। নাটকটির রূপান্তর ও নির্দেশনায় আসাদুল ইসলাম। সহযোগী নির্দেশক আনিসুল হক বরুণ, সেট ও লাইট ডিজাইন ফয়েজ জহির, পোশাক সোনিয়া হাসান এবং আবহসংগীত আর্য মেঘদূত।

কাহিনি সংক্ষেপ, মতিন একজন কবি। মনে মনে নিজেকে কল্পনা করে নেয়- সে একজন উজবেক কবি। নিজেই নিজেকে স্বপ্ন দেখে- ধবধবে ফর্সা গায়ের রং, পরনে জোব্বার মতো একটা পোশাক, লম্বাটে মুখ, চোখ তীক্ষ্ণ। মতিনের মধ্যে বাস করে অন্য এক মতিন। দিনে দিনে মতিন উদ্দিন হয়ে ওঠে নদ্দিউ নতিম। মতিনের হৃদয়ের সবটুকু দখল করে থাকে সহপাঠিনী নিশু। ভাবের ভেলায় ভেসে বেড়ালেও ভাবাবেগে মতিন ডুবে যায় না, সে বুঝতে পারে নিশুর মতো স্কলার মেয়ের যোগ্য সে নয়।

মতিনের একদিন চোখে পড়ে পত্রিকার পাতায় তিন লাইনের ছোট্ট একটা বিজ্ঞাপন- একজন সার্বক্ষনিক টিউটর প্রয়োজন, টিউটরের সৃজনশীলতা ব্যক্তিগত যোগ্যতা হিসাবে ধরা হবে, বেতন আকর্ষণীয়। বেতনের আকর্ষণীয় ক্ষমতায় মতিন তার কবি সত্ত্বাকে সাময়িক স্তিমিত রেখে কমল নামের একজন মানসিক প্রতিবন্ধী বাচ্চার টিউটর পদে অভিষিক্ত হয়। গল্পে নতুন মোড় নেয় ‘নদ্দিউ নতিম’।

নাটকটির অগ্রিম টিকেট পাওয়া যাচ্ছে চিলেকোঠা ও কফি হাউজে। ঘরে বসে অনলাইনেও টিকেট পাওয়া যাবে, এর জন্য ব্রাউজ করতে হবে ticketchai.com-এ।

/এমএম/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।