রাত ১২:৪১ ; মঙ্গলবার ;  ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯  

সবচেয়ে কর্মীবান্ধব হবে যেসব প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত:

দায়িদ হাসান মিলন।।

সবসময়েই শোনা যায় যে, তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের সবচেয়ে বেশি বেতন দেওয়া হয়। তাই বলে সব প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের কর্মীরাই সুখে থাকে সেরকম ভাবার কোনও কারণ নেই।

কিছু টেক কোম্পানি আছে যেগুলো কর্মীদের কথা চিন্তা না করে তাদের কাজ আদায় করে নিতেই বেশি আগ্রহী। আবার কিছু প্রতিষ্ঠান আছে যেগুলো কর্মীদের সুখ বা আনন্দকেই বেশি গুরুত্ব দেয়।

ফেসবুক বা গুগলকেই আমরা সবসময় কর্মীবান্ধব প্রতিষ্ঠান হিসেবে জেনে এসেছি। কিন্তু এই দুটিকে পেছনে ফেলে অনেক প্রতিষ্ঠানই বর্তমানে ওপরে উঠে আসছে। গ্লাসডোর নামক একটি প্রতিষ্ঠান সম্প্রতি এক গবেষণার পর এই তথ্য প্রকাশ করেছে।

প্রতিষ্ঠানটির তথ্য অনুযায়ী ২০১৬ সালে কর্মীদেরকে সবচেয়ে ভালো সুবিধা দেবে এমন কয়েকটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হলো-

এয়ার-বিএনবি: এয়ার-বিএনবি একটি ট্রাভেল কোম্পানি। ট্রাভেলারদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির জন্য প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা কাজ করে থাকে। আর এই কর্মী এবং তাদের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের মধ্যকার সম্পর্ক খুবই আন্তরিক। ফলে স্বাধীনভাবে যেকেউ যেকোনও কাজ করতে পারে। এর রেটিং ৫ এর মধ্যে ৪.৬।

গাইড-ওইয়ার: এই প্রতিষ্ঠানটি ইনস্যুরেন্স কোম্পানির জন্য সফটওয়্যার তৈরি করে। এখানে কাজ করার সময় কর্মীরা তাদের পছন্দের কাজ বেছে নিতে পারে। এর রেটিং ৫ এর মধ্যে ৪.৫।

হাবস্পট: হাবস্পট সেলস এবং মার্কেটিং সফটওয়্যার তৈরি করে। এখানে ব্যবস্থাপকরা কর্মীদের সুপারিশ অনুযায়ী কাজ করে। প্রতিষ্ঠানটির রেটিং ৫ এর মধ্যে ৪.৪।

ফেসবুক: পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হলো ফেসবুক। এর সুযোগ-সুবিধা আমাদের কারও অজানা নয়। এ সম্পর্কে ফেসবুকের এক কর্মী বলেন, গণমাধ্যমে যেভাবে তুলে ধরা হয় তার চেয়ে এখনাকার সংস্কৃতি অনেক ভালো। ফেসবুকের রেটিং ৫ এর মধ্যে ৪.৪।

লিঙ্কডইন: চাকরি খোঁজার একটি ক্ষেত্র হলো লিঙ্কডইন। এ ছাড়াও ব্যবসা পেশাদারদের জন্য এটা অন্যতম একটা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। লিঙ্কডইনের কর্মীরা প্রতিষ্ঠানের জন্য যাই করুক না কেন তা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে অনুমোদন দেওয়া হয়। এর রেটিং ৫ এর মধ্যে ৪.৪।

গুগল: পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন হলো গুগল। এখানে বড় অর্জনের জন্য কর্মীরা সবাই একসঙ্গে কাজ করে এবং সেটা তারা উপভোগ করে। গুগল কর্মীদের জন্য সুযোগ-সুবিধাগুলোও অবিশ্বাস্য। যেমন- খাবার, জিমনেশিয়াম ইত্যাদি। গুগলের রেটিং ৫ এর মধ্যে ৪.৩।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

/এইচএএইচ/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।