রাত ০৫:২৬ ; রবিবার ;  ১৮ নভেম্বর, ২০১৮  

সিলেটে সহপাঠীর হাতে এসএসসি পরীক্ষার্থী খুন

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

সিলেট প্রতিনিধি।।

সিলেটের জৈন্তাপুরে সহপাঠীর হাতে পুলক চন্দ্র রাউত (১৪) নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী খুন হয়েছেন। শুক্রবার সকালে সিলেট-তামাবিল সড়কের পাখিটিকি হাওর থেকে জৈন্তাপুর থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় আটক নিহতের সহপাঠী আব্দুল কুদ্দুছ (১৪) পুলিশের কাছে এ ঘটনায় নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছেন জৈন্তাপুর থানার ওসি শফিউল কবির।

জৈন্তাপুর চারিকাটা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা পুলকের। সে দক্ষিণ বাউরভাগ গ্রামের পান্না লাল রাউতের পুত্র।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, গত ১০ ডিসেম্বর স্কুল থেকে ঔষধ কেনার উদ্দেশ্যে সারীঘাট বাজারে যাচ্ছে বলে পুলক তার মাকে জানায়। এরপর থেকে তার সন্ধান না পাওয়ায় পুলকের পিতা জৈন্তাপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। গত ১৭ ডিসেম্বর রাতে এলাকাবাসী সন্দেহভাজন হিসাবে উপজেলার উত্তর বাউরভাগ গ্রামের শফিক আহমদের দুই ছেলে আব্দুল কুদ্দুছ (১৪) এবং শাহাব উদ্দিন শাবুকে (১৮) জৈন্তাপুর মডেল থানায় নিয়ে যায়। এরপর তারা পুলিশের কাছে এ ঘটনায় নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী শুক্রবার সকালে সিলেট-তামাবিল সড়কের পাখিটিকি হাওরের বড় ভূইয়া ফিসারিজের দক্ষিণ-পূর্ব পাশ থেকে পুলকের বিকৃত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

জৈন্তাপুর থানার ওসি শফিউল কবির জানান, পুলিশ ওই হাওরে কচুরিপানার নিচ থেকে পুলকের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশের কোমর থেকে পা পর্যন্ত অংশ ছিল হাড্ডিসার। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে।

তিরি আরও জানান, আটক দুই সহোদর এ ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হয়েছে। শনিবার তাদেরকে আদালতে আনা হবে।

/আরএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।