রাত ০৩:১১ ; সোমবার ;  ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭  

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ইতিবাচক মনে করে ৭৫.৬ ভাগ বাংলাদেশি

প্রকাশিত:

রুশো রহমান।।

সামাজিক যোগাযোগ সেবা মাধ্যম (এসএনএস) প্রাত্যহিক জীবনে আনেক ইতিবাচক ভূমিকা পালন করে বলে মনে করেন ৭৫ দশমিক ৬ ভাগ  মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারকারী। অন্যদিকে ৬ দশমিক ৮ ভাগ  ব্যবহারকারীর মতে এসএনএস প্রাত্যহিক জীবনের জন্য নেতিবাচক।

সম্প্রতি ৭ হাজার ৩৯৫ মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর (বাংলাদেশি) ওপর জরিপ চালিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিশ্বের শীর্ষ থার্ড পার্টি মোবাইল ব্রাউজার (স্ট্যাটকাউন্টারের তথ্যানুযায়ী) ইউসি ব্রাউজার।

জরিপে অংশ নেওয়া ৮৫ দশমিক ১ ভাগ বাংলাদেশির মতে দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় এসএনএস হচ্ছে ফেসবুক। ৭০ শতাংশের বেশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারী প্রতিদিন ১ ঘণ্টার বেশি এসএনএস ব্যবহার করেন যারা হেভি ইউজারের অন্তর্ভুক্ত। জরিপে পাওয়া আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো হচ্ছে:

অন্যান্য অ্যাপস ও ব্রাউজারের তুলনায় বেশিরভাগ ব্যবহারকারী ইউসি ব্রাউজারের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করেন। দ্রুততর ফেসবুক সার্ফিং, ফটো আপলোডিং, রিয়েলটাইম ফেসবুক নোটিফিকেশন ইত্যাদির মাধ্যমে আকর্ষণীয় স্যোশাল ফিচার প্রদান করায় ৮০ শতাংশ মানুষ ইউসি ব্রাউজারকে বেছে নিয়েছেন। ব্যক্তিগত পরিচয়ের চেয়ে অনলাইন সম্পর্ক কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। অর্ধেকের বেশি ফেসবুক ব্যবহারকারীর ৩০০ জনের বেশি বন্ধু রয়েছে। প্রতি ১০ জনে ৬ জন ব্যবহারকারী অনলাইন বন্ধুদের সঙ্গে সরাসরি দেখা করেন। প্রোফাইল পিকচার নতুন বন্ধু বানাতে সহায়তা করে। ৮০ শতাংশ সামাজিক নেটওয়ার্ক ব্যবহারকারীর মতে মতে ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গুরুত্বপূর্ণ। 

ফেসবুকের ঘনিষ্ট বন্ধু বোঝাতে ইউসি ব্রাউজার প্রবর্তিত নুতন শব্দ ফ্রেন্ড বেস্ট শব্দটিও বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। শুধু ওয়েব ব্রাউজিংয়ের ক্ষেত্রে অনন্য প্রযুক্তি প্রদানই নয়, দেশে ইউসি ব্রাউজারের জনপ্রিয়তার পেছনে রয়েছে ব্যবহারকারীর প্রয়োজন অনুযায়ী সেবা গ্রহণের সুযোগ।

ইউসিওয়েব ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ডিপার্টমেন্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেনি ইয়ে বলেন, বাংলাদেশ আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এক বাজার, এখানকার চলমান অগ্রগতিতে আমরা গর্বিত। ক্রমাগত আমাদের পণ্যের উন্নয়ন এবং বাংলাদেশের ব্যবহারকারীদের জন্য আরও সহজ সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাব। শিগগিরই আসছে বিশ্বের প্রথম বাংলা ব্রাউজার।

/এইচএএইচ/     

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।