রাত ০৯:৫৯ ; শুক্রবার ;  ১৮ অক্টোবর, ২০১৯  

চট্টগ্রাম কলেজের ছাত্রাবাস বন্ধ ঘোষণা

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।।

চট্টগ্রাম সরকারি কলেজে (চট্টগ্রাম কলেজ) সমাবেশকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় কলেজের চারটি ছাত্রাবাস অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই ঘটনায় ছাত্রদের বুধবার রাত আটটার মধ্যে ছাত্রাবাস এবং ছাত্রীদের বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার মধ্যে ছাত্রীনিবাস ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

বুধবার বিকেল ৫টার দিকে কলেজের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

চট্টগ্রাম কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর জেসমিন আক্তার জানান, ‘নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলর সভায় শিক্ষার্থীদের ছাত্রাবাস ছাড়ার এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। একইসঙ্গে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটিও করা হয়েছে। তবে আজ সময় না থাকায় তদন্ত কমিটিতে কারা থাকবেন, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি।’

ছাত্রলীগ কর্মীরা জানায়, বেলা ১২টার দিকে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কর্মীরা শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ক্যাম্পাসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। ছাত্রলীগ নেতাদের বক্তৃতার শেষ পর্যায়ে শিবিরকর্মীরা অ্যাকাডেমিক ভবনে অবস্থান নিয়ে তাদের লক্ষ্য করে গুলি করে। এর সময় আহত হয় ছাত্রলীগের পাঁচকর্মী।

পুলিশ জানায়, ছাত্রলীগ নেতাকে লক্ষ করে গুলি ছোড়া হয়েছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে  নেতাকর্মীরা কলেজ গেটে অবস্থান নেয়।  এ সময় ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার থেকে শুরু করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে অর্ধশতাধিক  ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

পরে শিবিরের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত হলগুলো বন্ধের দাবিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ করে এবং কলেজের অধ্যক্ষ জেসমিন আক্তারকে একঘণ্টা তার কক্ষে অবরোধ করে রাখে।

সংঘর্ষের পর দুপুরে পুলিশ চট্টগ্রাম কলেজের সোহরাওয়ার্দী ও শেরে বাংলা ছাত্রাবাসে বিকাল তিনটার দিকে তল্লাশি চালায় এবং বেশ কিছু জেহাদি বই, সিডি এবং শিবিরের সাংগঠনিক কাগজপত্র জব্দ করে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য জানান,পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এবং ক্যাম্পাসসহ আশপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

চকবাজারার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজ আহমেদ বলেন, আটককৃতদের শনাক্ত করা হচ্ছে ।

/এআই/এমএনএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।